Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আতঙ্কে এলো না কেউ, হিন্দু শিক্ষকের সৎকার করলেন মুসলিম তরুণেরা

বৃহষ্পতিবার দুপুর পর্যন্ত লাশ বাড়িতে পড়ে থাকলেও হিন্দু সম্প্রদায়ের রীতি অনুযায়ী সৎকারে এগিয়ে আসেননি তার পরিবার এবং আত্মীয়-স্বজনরা। 

আপডেট : ১৩ জুন ২০২০, ০৯:৩৬ পিএম

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলায় করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা যান শিক্ষক হরিলাল দেবনাথ (৫৫)। তবে আতঙ্কে তার সৎকারে এগিয়ে আসেনি পরিবারের সদস্যরা। শেষমেশ ওই শিক্ষকের সৎকার সম্পন্ন করেন স্থানীয় কয়েকজন মুসলিম যুবক।  

শিক্ষক হরিলাল দেবনাথ কালীগঞ্জ উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের চুপাইর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। তার বাড়ি স্থানীয় মোক্তারপুর ইউনিয়নের মৈশাইর গ্রামে।

স্থানীয়রা জানান, অসুস্থতাজনিত কারণে গত বুধবার (১০ জুন) রাতে হরিলাল দেবনাথের মৃত্যু হয়। করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ওই শিক্ষক মারা গেছেন- এমন সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। পরদিন বৃহষ্পতিবার দুপুর পর্যন্ত লাশ বাড়িতে পড়ে থাকলেও হিন্দু সম্প্রদায়ের রীতি অনুযায়ী সৎকারে এগিয়ে আসেননি তার পরিবার এবং আত্মীয়-স্বজনরা। 

বৃহষ্পতিবার বিকেলে মৈশাইর গ্রামের কবির হোসেন পালোয়ানের নেতৃত্বে গ্রামের কয়েকজন মুসলিম যুবক ওই শিক্ষকের সমাধির মাধ্যমে সৎকার করেন।  

এ বিষয়ে কবির হোসেন পালোয়ান জানান, “দীর্ঘ সময়েও সনাতন ধর্মাবলম্বী কেউ এগিয়ে না আসায় মানবিক ও সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকেই স্থানীয় কিছু সংখ্যক মুসলিম যুবকদেরকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের প্রিয় শিক্ষকের শেষকৃত্য (সমাধি) করেছি।”

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ছাদেকুর রহমান আকন্দ বলেন, শিক্ষক হরিলাল দেবনাথ করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন-এলাকায় এমন সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে। তাই তার দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছিল কিনা তা নিশ্চিত হতে নমূনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানোহয়েছে।

 

About

Popular Links