Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রথিতযশা সাংবাদিক কামাল লোহানী আর নেই

শনিবার (২০ জুন) সকালে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। আগেরদিন শুক্রবার সকালে তার করোনাভাইরাস নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভি আসে

আপডেট : ২০ জুন ২০২০, ১০:৫৪ এএম

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ভাষা সৈনিক, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সংগঠক, প্রথিতযশা সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানী।

শনিবার (২০ জুন) সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর।

শুক্রবার (১৯ জুন) সকালে কামাল লোহানীর করোনাভাইরাস নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভি আসে। পরে তাকে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় বলে ঢাকা ট্রিবিউনকে  জানান তার মেয়ে বন্যা লোহানী। এর আগে, গত ১৭ জুন কিডনি জটিলতার কারণে রাজধানীর হেলথ  অ্যান্ড হোপ হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি হন তিনি।

১৯৩৪ সালের ২৬ জুন সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন কিংবদন্তি সাংবাদিক এবং সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানী। তিনি ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন, ভারত ভাগ ও ভাষা আন্দোলনের জীবন্ত সাক্ষী হয়ে বেড়ে ওঠেন।

১৯৫৫ সালে দৈনিক মিল্লাতে সাংবাদিক হিসাবে প্রথম চাকরি শুরু করেন লোহানী। তিনি ১৯৬২ সালে সাংস্কৃতিক সংগঠন ছায়ানটে সেক্রেটারি হিসেবে যোগ দেন। প্রথিতযশা এ ব্যক্তিত্ব উদীচী শিল্পগোষ্ঠীরও সভাপতি ছিলেন।

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের বার্তা বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ২০০৯ থেকে ২০১১ পর্যন্ত শিল্পকলা  অ্যাকাডেমির মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন কামাল লোহানী। ২০১৫ সালে একুশে পদক পান তিনি।

এদেশ আমার গর্ব, ভাষা সংস্কৃতি ও গণমাধ্যম, আমাদের সংস্কৃতি ও সংগ্রাম, রাজনীতি মুক্তিযুদ্ধ স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের মতো উল্লেখযোগ্য দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিনির্ভর বইও লিখেছেন বরেণ্য এ সাংবাদিক। স্বাধীনতাত্তোর সময়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন ইউনিয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি।

 

About

Popular Links