Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

করোনাভাইরাস মহামারিতে সাইকেলবান্ধব যাতায়াত অবকাঠামো নির্মাণের আহ্বান

বর্তমানে ঢাকা শহরে মোট যাতায়াতের ২% হয় সাইকেলে। এজন্য দ্রুত সময়ের মধ্যে সাইকেলবান্ধব অবকাঠামো তৈরি করা প্রয়োজন

আপডেট : ২৪ জুন ২০২০, ০৬:১৫ পিএম

করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর সারা বিশ্বে যাতায়াত ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। চলমান মহামারিতে নিরাপদ যাতায়াতের জন্য বিশ্বের অনেক শহর ইতোমধ্যে নানা উদ্যোগ নিয়েছে। বাগোতাতে ৫৫০ কি.মি. সাইকেল লেনের সাথে আরো ৮০ কিলোমিটার লেন সংযোজন করা হয়েছে, মেক্সিকো ৮০ মাইল অস্থায়ী সাইকেল লেন তৈরি করেছে যাতে জনগণ দূরত্ব বাজায় রেখে যাতায়াত করতে পারে, প্যারিস ২০২৪ সালের মধ্যে সড়কগুলো সাইকেলবান্ধব করবে। 

বর্তমানে ঢাকা শহরে মোট যাতায়াতের ২% হয় সাইকেলে। এজন্য দ্রুত সময়ের মধ্যে সাইকেলবান্ধব অবকাঠামো তৈরি করা প্রয়োজন। প্রয়োজন অবকাঠামোসহ একটি সমন্বিত সাইকেল নেটওয়ার্ক তৈরি করে অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিত করা। 

বুধবার (২৪ জুন) বিকেলে রাজধানীর ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবিইং বাংলাদেশ এবং কারফ্রি সিটিস এলায়েন্স বাংলাদেশ এর যৌথ আয়োজনে “করোনা পরিস্থিতিতে সাইকেলের ভূমিকা: দ্রুত অবোকাঠামো বাস্তবায়নে করণীয়” শীর্ষক অনলাইন ওয়েবিনারের আলোচনা সভায় বক্তারা এই অভিমত জানান। 

আলোচনা সভায় ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবিইং বাংলাদেশ-এর নির্বাহী পরিচালক দেবরা ইফরইমসন বলেন,  সুস্থ এবং নিরাপদ যাতায়াত ব্যবস্থা গড়ে তুলতে আগের মতো ব্যক্তিগত গাড়ি নির্ভর যাতায়াত ব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। বিশ্বের অনেক দেশ এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি হাঁটা, সাইকেলকে প্রাধান্য দিয়ে যাতায়াত ব্যবস্থা গড়ে তুলছে। কারণ এসব মাধ্যমে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিরাপদ যাতায়াত ব্যবস্থা যেমন নিশ্চিত করা সম্ভব পাশাপাশি পরিবেশ, স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির ক্ষেত্রেও সহায়ক ভূমিকা রাখে।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনায় ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর প্রকল্প কর্মকর্তা মো. আতিকুর রহমান বলেন, রাজউক এলাকায় দৈনিক সংঘটিত ৩ কোটি ট্রিপের মধ্যে প্রায় ৬০০,০০০ ট্রিপ সংঘটিত হয় সাইকেলে। রিভাইসড স্ট্র্যাটেজিক ট্রান্সপোর্ট পলিসি ও জাতীয় বহুমাধ্যমভিত্তিক পরিবহন নীতিমালায় সাইকেলবান্ধব অবকাঠামো তৈরির কথা বলা আছে। কিন্তু নগর যাতায়াত পরিকল্পনায় তা আমরা দেখতে পাইনি। 

ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবীইং বাংলাদেশ এর নেটওয়ার্ক অফিসার শান্তনু বিশ্বাসের সঞ্চালনায় আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর পরিচালক গাউস পিয়ারী,  ঢাকা আইডিয়াল ক্যাডেট স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ মান্নান মনির, বেলাল হোসেন, সাইকেলান্স অফ বাংলাদেশের সিফাত হারুন, বায়স্কোপ এর আলমগীর হোসেন, ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবীইং বাংলাদেশ এর মাহমুদুল হাসান প্রমুখ।

About

Popular Links