Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নোয়াখালীতে চুরি হওয়া নবজাতককে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিলো পুলিশ

এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২০, ১১:০৯ এএম

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে জন্ম নেওয়ার একদিন পর চুরি হয়ে যাওয়া এক নবজাতককে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিয়েছে চাটখিল থানা পুলিশ। 

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই)  ভোরে চুরির অভিযোগ পাওয়ার ৬ ঘন্টা পর উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের নোয়াখালা গ্রামের মোশারফ হোসেন গাজীর বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিএ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বিকালে চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম শিশুটিকে আদালতের মাধ্যমে বাবা বেলাল হোসেন ও মা রিনা বেগমের হাতে তুলে দেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার উত্তরদেব নগর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী মারজাহান বেগম (৩০), নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ী উপজেলার মুকিল্লা গ্রামের হাবিবুল বাহারের স্ত্রী লাভলী বেগম (৩২) ও নবজাতক ক্রয়কারী চাটখিল উপজেলার নোয়াখলা গ্রামের মোশারফ হোসেন গাজী (৪২)।

চাটখিল থানায় দায়ের করা অভিযোগে নবজাতকটির বাবা লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জের ব্যবসায়ী বেলাল হোসেন উল্লেখ করেন, গত ২৩ জুলাই তার স্ত্রী রিনা বেগম  চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন। ২৪ জুলাই প্রসূতি ও নবজাতককে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। গ্রেফতার হওয়া লাভলী ও মারজাহান বেগম সম্পর্কে তার চাচী হন।

প্রসূতি রিনা বেগমকে নিয়ে লাভলি ও মারজাহান বেগম বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে আসলে কৌশলে লাভলী বেগম ও মারজাহান বেগম তার সন্তানকে নিয়ে নোয়াখলা গ্রামের মোশারফ হোসেনের কাছে ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয় এবং রিনা বেগমকে সোনাইমুড়ী উপজেলার মুকিল্লা গ্রামের লাভলী বেগম এর ঘরে নিয়ে আটক রাখে। এসময় প্রসূতি রিনা বেগমের কাছ থেকে ৩০০ টাকা মূল্যের একটি অলিখিত স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে নেয় লাভলী বেগম। ঘটনা আঁচ করতে পেরে, রিনা বেগম কৌশলে সোমবার রাতে লাভলীর বাসা থেকে পালিয়ে চাটখিল থানায় এসে পুলিশের কাছে ঘটনার বর্ণনা দেন। এসময় রিনার স্বামী ব্যবসায়ী বেলাল হোসেন ও চাটখিল থানায় এসে হাজির হন। এ ঘটনায় সোমবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে বেলাল হোসেন বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।

 চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, “অভিযোগ পেয়ে, চাটখিল থানার ওসি মো. আনোয়ারুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ রাতেই শিশুটি উদ্ধার অভিযানে নামে। ভোরে নোয়াখলা গ্রামের মোশারফ হোসেন গাজীর বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এসময় লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার উত্তরদেব নগর গ্রামের মারজাহান বেগম, সোনাইমুড়ী উপজেলার মুকিল্লা গ্রামের লাভলী বেগম ও নবজাতক ক্রয়কারী চাটখিল উপজেলার নোয়াখলা গ্রামের মোশারফ হোসেন গাজীকে গ্রেফতার করা হয়।”  

 তিনি আরও জানান, আজ বিকালে শিশুটিকে আদালতের মাধ্যমে তার মা-বাবার কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়। গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

About

Popular Links