Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

গতবারের চেয়ে দ্বিগুণ বাজেট ঘোষণা করলেন ডিএসসিসি মেয়র

ডিএসসিসি মেয়র তাপস বলেন, 'বাজেটের মূল লক্ষ্য হলো কাউন্সিলর ও সংসদ সদস্যদের উন্নয়ন ব্যয় বাড়ানো, যাতে করে তারা জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেন'

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২০, ০৬:৫৫ পিএম

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ২০২০-২০২১ অর্থবছরের জন্য ৬১১৯.৫৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেছে যা গত বছরের বাজেটের প্রায় দ্বিগুণ। ২০১৯-২০ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের আকার ছিল ২৫৮৫.৩১ কোটি টাকা। বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) নগর ভবন মিলনায়তনে ২০২০-২০২১ অর্থবছরের জন্য ডিএসসিসি’র বাজেট ঘোষণা করেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

তিনি বলেন, “বাজেটের মূল লক্ষ্য হলো কাউন্সিলর ও সংসদ সদস্যদের উন্নয়ন ব্যয় বাড়ানো, যাতে করে তারা জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেন।”

তাপস বলেন, “২০২০-২১ অর্থবছরে নিজস্ব উৎস থেকে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১০০৯.০২ কোটি টাকা। এর মধ্যে হোল্ডিং ট্যাক্স বাবদ ৩৫০ কোটি, বাজার সালামী বাবদ ১৬৫ কোটি, বাজার ভাড়া বাবদ ৫০ কোটি টাকা। এছাড়া সরকারি মঞ্জুরি (থোক) হতে ৫০ কোটি ও সরকারি বিশেষ মঞ্জুরি বাবদ ১০০ কোটি, সরকারি ও বৈদেশিক সহায়তামূলক প্রকল্প খাতে ৪৭৬৬.৫৭ কোটি টাকা পাওয়ার আশা করছি।”

বাজেটের ব্যয় প্রসঙ্গে ডিএসসিসি মেয়র বলেন, “বেতন ভাতা বাবদ ২৬৪.০০ কোটি, বিদ্যুত, জ্বালানি, পানি ও গ্যাস বাবদ ৫০.০০ কোটি, মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ বাবদ ২৪ কোটি, মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম (মনিটরিং ও সার্ভাইলেন্সসহ) বাবদ ৩৫ কোটি, মালামাল সরবরাহ বাবদ ২১.৫৮ কোটি, ভাড়া, রেটস্ ও কর খাতে ৪.৪০ কোটি, কল্যাণমূলক ব্যয় বাবদ ২০.০৫ কোটি, বিজ্ঞাপন ও প্রচারণা বাবদ ৩.৫০ কোটি, ফিস বাবদ ২৪.০০ কোটি, বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় বিশেষ উদ্যোগ বাবদ ৮.০০ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে।”

“সড়ক ও ট্রাফিক অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নে ১৭৪১.৭৫ কোটি, নাগরিক বিনোদনমূলক সুবিধাদির উন্নয়নে ৮৪৭ কোটি, ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ, উন্নয়ন/ রক্ষণাবেক্ষণে ৯১৭.৫৭ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে”, যোগ করেন তাপস।

About

Popular Links