Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘যথাযথ স্বাস্থ্যসেবার কারণে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর হার অনেক কমে গেছে’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, 'একই সাথে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হারও অনেক কমে যাচ্ছে'

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২০, ০৫:১৫ পিএম

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন,“যথাযথ স্বাস্থ্যসেবার কারণে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর হার অনেক কমে গেছে। দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা আরও উন্নত হয়েছে। একই সাথে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হারও অনেক কমে যাচ্ছে। সুস্থতার হার বেড়ে যাওয়ায় অর্থনীতির চাকা সচল হয়েছে। জীবন-জীবিকা অনেকটাই স্বাভাবিক হয়েছে।”

শনিবার (১৫ আগস্ট) দুপুরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার গড়পাড়া শুভ্র সেন্টারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যকালে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টা চলছে। করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পাওয়ার ব্যাপারে বাংলাদেশ যাতে অগ্রাধিকার পায়, সেই বিষয়ে আলোচনা চলছে। কীভাবে দেশের মানুষ ভ্যাকসিন পাবে, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

জাহিদ মালেক বলেন, “করোনাভাইরাসে পুরো পৃথিবী আক্রান্ত হয়েছিল। ইউরোপের প্রতিটি দেশে জনসংখ্যার হার কম হলেও সেখানে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর হার বেশি। বাংলাদেশে মৃত্যুর হার ১.৩২%। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা কাজ করেছি। এ পর্যন্ত সাড়ে তিন হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছে। সুচিকিৎসা ও যথাযথ স্বাস্থ্যসেবার মাধ্যমে মৃত্যুর হার কমিয়ে রাখতে পেরেছি আমরা। দেশ থেকে ধীরে ধীরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমে যাচ্ছে, মৃত্যুর হারও কমে যাচ্ছে।”

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। স্বাধীনতার আগে বাঙালিদের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক কোনো ক্ষেত্রেই অধিকার ছিল না। পাকিস্তানিরা পূর্ব পাকিস্তানকে একটি দরিদ্র কলোনি হিসেবে ব্যবহার করেছে। পূর্ব পাকিস্তানে শতকরা ৮০ ভাগ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করতো। নানা বৈষম্যের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু আওয়াজ তুলেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে মাত্র তিন বছরে বঙ্গবন্ধু একটি পর্যায়ে নিয়ে এসেছিলেন।”

মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জজকোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম, সাটুরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

About

Popular Links