Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সবুজ চুল কেটে দেওয়ায় মন খারাপ টিকটক অপুর

অপুর আইনজীবী জাহানারা বেগম বলেন,  কাজের প্রয়োজনে অপু চুল বড় রেখেছিল এবং রঙ করিয়েছিল

আপডেট : ২১ আগস্ট ২০২০, ০২:৩৭ পিএম

কারাগারে থাকা অবস্থায় রঙিন চুল কেটে দেওয়ায় টিকটক অপু নামে পরিচিত ইয়াসীন আরাফাত অপুর মন খারাপ হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী। ১৫ দিন পর গত মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর তার সবুজ রঙের সেই চুল আর দেখা যায়নি। 

অপুর আইনজীবী জাহানারা বেগম বলেন, অপু মডেলিং করে। কাজের প্রয়োজনে সে চুল বড় রেখেছিল এবং রঙ করিয়েছিল। কারাগারে তার চুল কেটে ছোট করা হয়েছে। এতে তার মন খারাপ হয়েছে।


আরও পড়ুন - মারামারি করতে গিয়ে নোয়াখালীর টিকটকার 'অপু ভাই' কারাগারে


এ বিষয়ে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জ্যেষ্ঠ জেল সুপার ইকবাল কবীর চৌধুরী বলেন, কারাবিধি অনুযায়ী শৃঙ্খলার জন্য প্রত্যেক আসামির চুল ছোট করার নিয়ম রয়েছে। এ জন্য অপুর চুল ছোট করা হতে পারে।


আরও পড়ুন - ‘এখন থেকে ভালো ভালো ভিডিও করবো’


গত ২ আগস্ট রাজধানীর উত্তরার ৬ নম্বর সেক্টরের আলাওল অ্যাভিনিউতে রাস্তা দখল করে অপু এবং তার কয়েকজন সহযোগী আড্ডা দিচ্ছিলো। সে সময় মেহেদী হাসান নামের এক ব্যক্তি বন্ধুদের নিয়ে গাড়িতে করে ওই সড়ক দিয়ে যাচ্ছিলেন। তারা রাস্তা ছাড়তে হর্ন দেন। পরে এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও মারামারি হয়। এর জের ধরে গত ৩ আগস্ট দুপুরে মেহেদী হাসানের বাবা এস এম মাহবুব আলম বাদী হয়ে মারামারি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ এনে উত্তরা পূর্ব থানায় একটি মামলা করেন। পুলিশ ওই মামলায় অপু ও সহযোগী নাজমুলকে গ্রেপ্তার করে। 

 

About

Popular Links