Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কিশোরীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগে ইউপি সদস্য গ্রেফতার

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও ২০১২ সালের পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়

আপডেট : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:০৪ এএম

সিলেটে এক কিশোরীকে ধর্ষণ ও ওই ঘটনার ভিডিওচিত্র ধারণের অভিযোগে সদর উপজেলার ৮ নম্বর কান্দিগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য শাবাজ আহমদকে (৩৮)  গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় স্থানীয় গোপাল এলাকা থেকে জালালাবাদ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। 

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি)এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

পুলিশ জানায়, শাবাজ আহমদসহ অজ্ঞাতনামা দুই ব্যক্তি বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে স্থানীয় একটি মসজিদের সামনে থেকে এক কিশোরীকে (১৬) অপহরণ করে দক্ষিণ সুরমার লালাবাজার গ্রামের এক বাসায় নিয়ে যায়। রাত ৯টার দিকে শাবাজ ওই কিশোরীর ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়। এরপর শাবাজের সঙ্গে থাকা অজ্ঞাতনামা দুই ব্যক্তিও কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় শাবাজ মোবাইল ফোনে কিশোরীর নগ্ন ভিডিও ও স্থিরচিত্র ধারণ করে।

এ বিষয়ে ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার জালালাবাদ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও ২০১২ সালের পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে অভিযোগটি নথিভূক্ত করা হয়। 

এরপর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) লিটন চন্দ্র নাথসহ জালালাবাদ থানা পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটের দিকে শাবাজ আহমদকে (৩৮) গ্রেফতার করে।

জালালাবাদ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অকিল উদ্দিন জানান, আসামিকে শুক্রবার আদালতে পাঠানো হবে। ভুক্তভোগী কিশোরী বর্তমানে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন।

 

About

Popular Links