Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ধরলার ভাঙনে বিলীনের মুখে প্রাথমিক বিদ্যালয়

সোমবার স্কুলের ভবনটির একটি অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে

আপডেট : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৪৮ এএম

গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিপাত ও উজানের ঢলে ধরলা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় এর অববা‌হিকায় তীব্র ভাঙন দেখা দি‌য়ে‌ছে। অব্যাহত ভাঙনে বিলীনের পথে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বড়‌ভিটা ইউ‌নিয়‌নের মেখলির চর খন্দকারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

সোমবার (৭ সে‌প্টেম্বর) স্কুলটির একাংশ নদী গর্ভে চলে যাওয়ায় স্কুলের মালামাল সরিয়ে নিয়ে‌ছেন শিক্ষকরা। জরুরী ভি‌ত্তি‌তে ভাঙন প্রতি‌রোধ না কর‌লে দুই এক দি‌নের ম‌ধ্যে পু‌রো বিদ‌্যালয়‌টি ধরলায় বিলীন হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ ক‌রেছেন বিদ‌্যালয়‌টির শিক্ষক ও এলাকাবাসী।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সবুর আলী জানান, ১৯৯০ সালে স্কুলটি প্রতিষ্ঠিত হয়। চারজন শিক্ষক ও প্রায় একশ' শিক্ষার্থী নিয়ে চর এলাকায় শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রে‌খে‌ছিল স্কুলটি। আর চার রু‌মের ভবনটি নির্মিত হয় ২০০০ সালে। গত এক সপ্তাহ ধরে ধরলার তীব্র ভাঙনে নদী স্কুলটির কাছে চলে আসে। ভাঙ‌নে স্কুল ভবন‌টি ধ্ব‌সে পড়ার উপক্রম হয়েছে।

তিনি জানান, “উপজেলা শিক্ষা অফিসের পরামর্শে স্কুলের চেয়ার, বেঞ্চসহ অন্যান্য মালামাল সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।”

ভাঙনের শিকার স্থানীয় বাসিন্দা বাছের আলী ও আবদার আলী জানান, গত এক মাস ধরে মেখলি গ্রামে ধরলার ভাঙন তীব্র আকার ধারণ ক‌রে‌ছে। এতে এ পর্যন্ত ৪০ থেকে ৪৫ টি পরিবার গৃহহীন হয়েছে। স্কুল ছাড়াও চর মেখলি জামে মসজিদও হুমকির মুখে। বর্তমানে তীব্র ভাঙনে প্রতিনিয়ত গৃহহীন হচ্ছে এই গ্রামের মানুষ।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার রাশেদুল ইসলাম মন্ডল জানান, “সরেজমিন পরিদর্শন করে স্কুলের বর্তমান অবস্থা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।”

পা‌নি উন্নয়ন বো‌র্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম জানান, “বিষয়‌টি প্রাথ‌মিক শিক্ষা বিভাগ থে‌কে আমা‌দের আনুষ্ঠা‌নিকভা‌বে জানা‌নো হয়‌নি। তারপরও বিদ‌্যালয়‌সহ ওই এলাকায় ধরলার ভাঙন প্রতি‌রো‌ধে মঙ্গলবার স‌রেজ‌মিন প‌রিদর্শনে যা‌বো।”

About

Popular Links