Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মোবাইল আনতে গিয়ে প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিক খুন

কর্তব্যরত চিকিৎসক তাসনিম তামান্না স্বর্ণা জানান, পরীক্ষা করে দেখা গেছে হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে

আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৪০ পিএম

প্রেমিকার কাছে রেখে আসা মোবাইল আনতে গিয়ে তার স্বজনদের হাতে এক  তরুণ খুন হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।  রবিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার দিকে ঈশ্বরদী উপজেলার পৌর এলাকার সাঁড়া গোপালপুর মতি মোল্লার মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত হৃদয় মাহমুদ (১৮) সাঁড়া ইউনিয়নের মাঝদিয়া ইসলামপাড়া গ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে। সে সাঁড়া ঝাউদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শী, পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, সাঁড়া গোপালপুর গ্রামের এক কিশোরীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল হৃদয়ের। তার সঙ্গে দেখা করতে শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে হৃদয় তার প্রেমিকার বাড়িতে যায়। বাড়ির লোকজন টের পেলে সেখান থেকে পালিয়ে যায় হৃদয়। তবে তার মোবাইল ফোনটি ওই কিশোরীর কাছে থেকে যায়। রবিবার দুপুরে মোবাইলটি আনতে ফের তার বাড়িতে গেলে কিশোরীর ভাই আনিছ ও খালাতো ভাই সজিব তাকে মারপিট করে। এক পর্যায়ে হৃদয় জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তাকে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় আনিছ ও সজিব। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

কর্তব্যরত চিকিৎসক তাসনিম তামান্না স্বর্ণা জানান, পরীক্ষা করে দেখা গেছে হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহত হৃদয়ের বাবা আব্দুল হালিম বলেন, “দুপুর ১টার সময় আমার ছেলের মোবাইলে ফোন করলে অন্য একজন ফোনটা রিসিভ করে। সে সময় ছেলের আর্তচিৎকার শুনেছি। তারপর থেকে মোবাইলটি বন্ধ রয়েছে।”

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসির উদ্দীন বলেন, খবর পেয়ে ঈশ্বরদী হাসপাতাল থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

About

Popular Links