Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘গোপন বিয়ের’ অনুষ্ঠান থেকে বর কারাগারে, বৌ বাবার বাড়িতে!

অনুষ্ঠান থেকে বরকে কারাগারে পাঠিয়েছে প্রশাসন, তার বাবাকে গুণতে হয়েছে জরিমানা

আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৫৫ এএম

পাত্রী প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়ায় আইনি ঝামেলা এড়াতে গোপনে বিয়ে। এরপর জাঁকজমক করেই আয়োজন করা হয় বৌভাতের অনুষ্ঠান। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। বাল্য বিয়ের অপরাধে ওই অনুষ্ঠান থেকে বরকে কারাগারে পাঠিয়েছে প্রশাসন, তার বাবাকে গুণতে হয়েছে জরিমানা। আর মুচলেকা নিয়ে নববধুকে স্বামীর বাড়ি থেকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বাবার বাড়ি।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের হামলাইকোল গ্রামে। দণ্ডপ্রাপ্ত ওই বরের নাম ইসরাফিল। তার বাবার নাম শহিদুল ইসলাম।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এই রায় দেন গুরুদাসপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আবু রাসেল।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাহারুল ইসলাম ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি মোজাহারুল ইসলাম জানান, সম্প্রতি ইসরাফিলের সঙ্গে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী শিরিন সুলতানার গোপনে বিয়ে হয়। বৃহস্পতিবার ইসরাফিলের বাড়িতে বৌভাতের অনুষ্ঠান চলছিল। খবর পেয়ে সহকারি কমিশনার (ভূমি) আবু রাসেল বরের বাড়িতে যান। ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পর সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসে। এ সময় বর ইসরাফিল ইসলামকে ৩ মাসের কারাদণ্ড এবং তার বাবা শহিদুল ইসলামকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। 

পাশাপাশি মেয়ের বাবাকে সতর্ক করে ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত স্বামীর বাড়ি পাঠাবে না মর্মে মুচলেকা নিয়ে নববধুকে বাবার বাড়িতে পাঠানো হয়।


About

Popular Links