Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতে করোনাভাইরাস খুঁজছে ‘ফেলুদা’

কিটটি আবিষ্কারের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দলের নেতৃত্বে দেবজ্যোতি চক্রবর্তী ও সৌভিক মাইতি নামের দু’জন বাঙালি রয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৪০ পিএম

সত্যজিৎ রায়ের বিখ্যাত গোয়েন্দা চরিত্র ফেলুদার নামে নামকরণ করা করোনাভাইরাস টেস্টিং কিট বাণিজ্যিকভাবে বাজারে আনার অনুমতি দিয়েছে ভারত। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) যৌথভাবে টাটা গ্রুপ ও কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ ইন্সটিটিউট অব জিনোমিকস অ্যান্ড ইনটেগ্রেটিভ বায়োলজির (সিএসআইআর-আইজিবি) তৈরি টেস্টিং কিটটি বাজারে আনার অনুমতি দেওয়া হয়।  

সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, এই টেস্টে করোনাভাইরাসের জিনোমিক সিকোয়েন্স শনাক্ত করতে সিআরআইএসপিআর নামের সিএসআইআর-আইজিবি’র নিজস্ব একটি পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে। টাটার সিআরআইএসপিআর টেস্টটি আরটি-পিসিআর টেটের মতোই নির্ভুল। তবে এই টেস্টে আরটিপিসিআর’এর চেয়ে সময় কম লাগে, আর খরচও কম।

টাটার পক্ষ থেকে জানানো হয়, ফেলুদা টেস্টিং কিটটি বিশ্বের প্রথম টেস্টিং কিট যেখানে করোনাভাইরাস শনাক্ত করতে সিএএস৯ নামের প্রোটিন ব্যবহার করা হয়েছে।   

এ বিষয়ে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ডিসিজিআই) এক বিবৃতিতে জানায়, ফেলুদা কিট তৈরিতে টাটা গ্রুপ সিএসআইআর-আইজিআইবি এবং আইসিএমআর’এর সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করেছে। এর মাধ্যমে “মেড ইন ইন্ডিয়া” পণ্য দিয়ে দ্রুত ও সাশ্রয়ীভাবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা যাবে।  

এদিকে কিটটি আবিষ্কারের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দলের নেতৃত্বে দেবজ্যোতি চক্রবর্তী ও সৌভিক মাইতি নামের দু’জন বাঙালি রয়েছেন বলে উল্লেখ করেছে এনডিটিভি। 

সর্বশেষ রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) ভারতে করোনাভাইরাসে নতুনভাবে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৯২ হাজার ৬০৫ জন। এ নিয়ে দেশটিতে ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৪ লাখ। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ১১৩ জনে মৃত্যু হয়েছে।  

About

Popular Links