Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বিয়ে করতে বলায় প্রেমিকাকে গলা কেটে হত্যা

এ ঘটনায় জড়িত দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

আপডেট : ০১ অক্টোবর ২০২০, ১০:০৮ পিএম

নোয়াখালীতে তরুণীকে হত্যার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) বেগমগঞ্জ উপজেলার কেন্দুরবাগ এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবীর উদ্দিন।

গ্রেফতার দুই যুবক হলো - বেগমগঞ্জ উপজেলার কেন্দুরবাগ গ্রামের ইয়াছিন আরাফাত (২৬) ও মো. রাসেল (২৪)। এর আগে বুধবার সদর উপজেলার নোয়ান্নই ইউনিয়নের চর করমুল্যা গ্রামের একটি ডোবায় একটি বস্তার ভেতর থেকে গলা কাটা অবস্থায় শাহানা (২৫) নামে ওই তরুণীর লাশ উদ্ধার করা হয়। শাহানার বাড়ি চাঁদপুর জেলার পুরান বাজার গ্রামে।

পুলিশ জানায়, মোবাইল ফোনে শাহানার সাথে প্রেমের সম্পর্কে গড়ে ওঠে ইয়াছিন আরাফাতের। এই সূত্রে নোয়াখালী থেকে প্রায়ই আরাফাতের সাথে দেখা করতে নোয়াখালীতে আসতেন শাহানা। সর্বশেষ গত ২৯ সেপ্টেম্বর ইয়াছিনের সাথে দেখা করতে নোয়াখালী আসেন ওই তরুণী।

ওইদিন বিয়ের জন্য ইয়াছিনকে চাপ প্রয়োগ করেন শাহানা। এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ইয়াছিন ও তার সহযোগী মো. রাসেল কৌশলে শাহানাকে নোয়ান্নই ইউনিয়নের খন্দকার স’মিলের পিছনের একটি পরিত্যক্ত ভবনে নিয়ে গিয়ে হাত-পা বেঁধে গলা কেটে হত্যা করে। পরে শাহানার লাশ বস্তায় ঢুকিয়ে চর করমুল্যা গ্রামের একটি ডোবার মধ্যে ফেলে আসে তারা। বুধবার দুপুরে ডোবা থেকে ওই লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে প্রযুক্তি ব্যবহার করে মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার ওই দুই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সুধারাম মডেল থানার ওসি নবীর উদ্দিন ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “বৃহস্পতিবার এ ঘটনায় পুলিশ গ্রেফতার দুই আসামিকে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। সেখানে তারা খুনের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। পরে আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।”

About

Popular Links