Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পৌর কাউন্সিলরের বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ!

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কাউন্সিলর গোলাম মোস্তফা সাংবাদিকদের বলেন, 'মিটার বাদেই বিদ্যুৎ ব্যবহার করছি, এটি খুবই সামান্য একটি ব্যাপার'

আপডেট : ০৮ অক্টোবর ২০২০, ০৯:২৮ পিএম

যশোরে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে চৌগাছা পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে। এতে বিদ্যুৎ বিভাগের দেড় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ জানিয়েছেন।

জানা যায়, যশোরের চৌগাছা ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সরকারি কলেজপাড়ায় কাউন্সিলর গোলাম মোস্তফার একটি তিন তলা বাড়ি রয়েছে। ওই বাড়িতে কোনো বৈধ বৈদ্যুতিক সংযোগ নেই। তারপরও দীর্ঘ চার বছর ধরে ওই বাড়িতে বিদ্যুৎ ব্যবহার করা হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে পল্লী বিদ্যুতের এক শ্রেণির অসাধু কর্মচারীদের সহায়তায় ওই বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুতের সংযোগ দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর ডিজিএম প্রকৌশলী কামাল জিয়াউল ইসলাম বলেন, “পৌর কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে অনৈতিকভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের অভিযোগটি সত্য। আমরা তদন্ত করে এর সত্যতা পেয়েছি। বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদের সভায় এ বিষয়ে জানানো হয়েছে। এছাড়া পৌর মেয়রকেও ব্যক্তিগতভাবে এই বিষয়ে অবহিত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, “প্রায় চার বছর ধরে তিনি এভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার করছেন। তার বাড়ির অবয়ব অনুযায়ী প্রতিমাসে কমবেশি তিন হাজার টাকার মতো বিদ্যুৎ ব্যবহৃত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। চার বছরের হিসেবে প্রায় এক লাখ ৬০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগের।”

চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) প্রকৌশলী এম এনামুল হক এ প্রসঙ্গে বলেন, “পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম আমাকে মৌখিকভাবে জানিয়েছেন। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কাউন্সিলর গোলাম মোস্তফা। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “চার বছর নয়, সম্প্রতি আমি কলেজের পাশে নতুন বাড়িতে উঠেছি। বিদ্যুতের মিটারের আবেদনও করা হয়েছে। ঘরের ভেতরে লাইনের কাজ কমপ্লিট হয়েছে। পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএমের সঙ্গে কথা বলেছি। যে কোনও সময় মিটার লাগানো হবে। মিটার বাদেই বিদ্যুৎ ব্যবহার করছি- এটি খুবই সামান্য একটি ব্যাপার। আমি পৌর আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি। তুচ্ছ এই বিষয়টি নিয়ে প্রতিপক্ষ মিথ্যাচার করছে।”

About

Popular Links