Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

১২ ও ১৩ অক্টোবরের পণ্য পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত

গত ৪ অক্টোবর সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনসহ নয় দফা দাবিতে সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টার পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ

আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৩ পিএম

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সঙ্গে বৈঠক শেষে আগামী ১২ ও ১৩ অক্টোবরের পূর্ব ঘোষিত ৪৮ ঘণ্টার পণ্য পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ।

রবিবার (১১ অক্টোবর) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ ঘোষণা দেন পরিষদের নেতারা।

সভায় নৌ পরিবহণ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান, সাবেক স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব, বিআইডব্লিইটিএর চেয়ারম্যান, ট্রাক ও কাভার্ডভ‍্যান মালিক শ্রমিক সমন্বয় পরিষদের আহ্বায়ক রুস্তম আলী খান, সদস‍্য সচিব মো. তাজুল ইসলামসহ সমন্বয় পরিষদের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, গত ৪ অক্টোবর সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনসহ নয় দফা দাবিতে সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টার পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ।

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী শাহ আমানত সেতু সংলগ্ন রাজবাড়ী কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত সভায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী এ ধর্মঘটের ডাক দেন।

ওই সভায় ওসমান আলী বলেন, “পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের স্বার্থের কথা বিবেচনা না করে সরকার সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ বাস্তবায়ন করেছে। ফলে সারাদেশে পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য চলছে। এ আইনের কারণে পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে।”

তিনি আরও বলেন, “আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এ আইন সংশোধনসহ পরিবহন নৈরাজ্য ঠেকাতে সংগঠনের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে ৯ দফা দাবির পাশাপাশি আগামী ১২ ও ১৩ অক্টোবর সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টার পণ্য পরিবহন ধর্মঘট পালন করা হবে। এর মধ্যে দাবি আদায় না হলে ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘট, তাও না হলে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট আহ্বান করা হবে।”

ওসমান আলী বলেন, শ্রমিকরা ট্রাক-কাভার্ডভ্যান, প্রাইম মুভার, মিনি ট্রাক ও লরি না চালালে চট্টগ্রাম বন্দরসহ দেশের বিভিন্ন বন্দর ও স্থান দিয়ে আমদানি-রপ্তানি, সব ধরনের গার্মেন্টস, খাদ্য ও বিভিন্ন পণ্য পরিবহন বন্ধ হয়ে যাবে।

About

Popular Links