Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সিলেটে গণধর্ষণ: চার আসামির ছাত্রত্ব ও সনদ বাতিল

সোমবার (১২ অক্টোবর) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়

আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০২০, ১১:০৪ এএম

সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি সাইফুরসহ চার জনের ছাত্রত্ব এবং সার্টিফিকেট (সনদ) বাতিল করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। পাশাপাশি তাদের স্থায়ীভাবে এমসি কলেজ থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে।

সোমবার (১২ অক্টোবর) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে এমসি কলেজের অধ্যক্ষ মো. সালেহ আহমদ জানান, অধিভূক্ত কলেজ হিসেবে তার লিখিত দরখাস্তের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার ওই চার জনের ছাত্রত্ব এবং সার্টিফিকেট বাতিল করা হয়।


আরও পড়ুন - এমসি কলেজে গণধর্ষণ: ভারতে পালাচ্ছিল আসামি সাইফুর ও অর্জুন


সাইফুর রহমান ছাড়া বহিষ্কৃত অন্যরা হলেন- শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, মাহফুজুর রহমান মাসুম ও রবিউল হাসান। এই চারজনই গণধর্ষণ মামলার আসামি। এরমধ্যে সাইফুর এই মামলার প্রধান আসামি। তারা চারজনই এ ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে এক তরুণীকে গণধর্ষণ করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এ ঘটনায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে শাহপরাণ থানায় মামলা দায়ের করেন ধর্ষণের শিকার তরুণীর স্বামী।

এজাহারভুক্ত ৬ জনসহ মোট ৮ জনকে এই মামলায় গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নেওয়া হয়। তারা সকলেই আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সাইফুর রহমান, রবিউল ইসলাম, মাহমুদুর রহমান রনি, অর্জুন লস্কর, মাহফুজির রহমান মাসুক, তারেক আহমদ, আইনুদ্দিন ও মো. রাজন।


আরও পড়ুন - চুল-দাড়ি কেটে ভোল পাল্টাতে চেয়েছিল তারেক!

About

Popular Links