Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মতিঝিলে আবাসিক হোটেল থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

নিহতের বোন নাসরিন বেগম ও ভাই আলাউদ্দিন ফরাজি জানান, ছয়-সাত মাস আগে বাসায় গৃহকর্মীর সঙ্গে স্বামীর অনৈতিক সম্পর্ক দেখে ফেলেন সোমা

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২০, ০৫:১৫ পিএম

রাজধানীর মতিঝিলে একটি আবাসিক হোটেল থেকে ইয়াসমিন আক্তার সোমা (৩২) নামের এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) মতিঝিলের ইনসাফ আবাসিক হোটেলের একটি কক্ষ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। 

নিহতের বোন নাসরিন বেগম ও ভাই আলাউদ্দিন ফরাজি রবিবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরের পর ঢামেক হাসপাতালের মর্গে এসে লাশ সনাক্ত করেন। 

তারা জানান, ইয়াছমিন আক্তার সোমার স্বামীর নাম আবুল কালাম। তাদের সাফায়েত (১০) নামের এক সন্তান রয়েছে। ছয়-সাত মাস আগে বাসায় গৃহকর্মীর সঙ্গে স্বামী আবুল কালামের অনৈতিক সম্পর্ক দেখে ফেলেন সোমা। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। পরে আবুল কালাম তার সন্তানকে নিয়ে অন্যত্র চলে যায়। 

তারাএ আরও জানান, সোমা বেশ কয়েক দিন আগে সাভারে বোন নাসরিনের বাসায় গিয়ে ওঠেন। মাঝে মধ্যে ঢাকাও যেতেন। এমনইভাবে গত শুক্রবার সকালে সাভার থেকে ঢাকায় যান তিনি। সেদিন সন্ধ্যার পর থেকে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। পরে শনিবার আবুল কালাম নাসরিনকে ফোন করে হুমকি দেন এবং বলেন, সোমা হোটেলে আছে। 

মতিঝিল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল জলিল বলেন, আবুল কালাম তার ছেলেকে নিয়ে গত ১৩ অক্টোবর ওই হোটেলের একটি কক্ষে ওঠেন। তিনি হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানান, তার স্ত্রী রাগ করে চলে গেছে। তিনি খুঁজতে এসেছেন। পরবর্তীতে তিনি আবার জানান, স্ত্রীকে পাওয়া গেছে। এই বলে কক্ষ পরিবর্তন করেন। পরে সোমা সেখানে যান। এর মধ্যে কোনো এক সময় আবুল কালাম তার সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যান। শনিবার সন্ধ্যায়, হোটেল বয় তাদের কক্ষ পরিস্কারের জন্য গিয়ে দেখতে পান, সোমা মেঝেতে পড়ে আছেন। এরপর পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।  

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন আসার পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

About

Popular Links