Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বগুড়ায় একই দিনে ২ হত্যাকাণ্ড

একই দিনে এক বৃদ্ধকে পিটিয়ে ও গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা করার ঘটনা ঘটেছে।

আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:২১ পিএম

বগুড়ায় একই দিনে দু’টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে গ্যারেজ মালিককে। আরেক ঘটনায় এক গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

নিহত রাজা মোল্লা (৬০) যশোপাড়া বাজারে অটোরিকশা চার্জের গ্যারেজের মালিক। গৃহবধূ আফরুজা বেগম (২৬) দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া ইউনিয়নের বড়চাপড়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া সদরের লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের যশোপাড়া বাজারে মাত্র ৪০ টাকার জন্য এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল নয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রাজা মোল্লার যশোপাড়া বাজারে অটোরিকশা চার্জের গ্যারেজ রয়েছে। প্রতিদিনের মতো বুধবার একই এলাকার ইলিয়াস (৫৫) তার অটোভ্যান রাজার গ্যারেজে চার্জ দিয়েছিল।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজা গাড়ি নেয়ার সময় ইলিয়াসের কাছে টাকা দাবি করলে সে টাকা পরিশোধের কথা জানায়। কিন্তু তা অস্বীকার করেন রাজা। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রাজা ইলিয়াসকে অনেক মারধর করে।

বাড়িতে গিয়ে ইলিয়াসের এ কথা শুনে তার রড মিস্ত্রি ছেলে রবিউল (২৩) লোহার রড হাতে নিয়ে প্রতিশোধের জন্য বাজারে এসে রাজাকে পেটায়। গুরুতর আহত অবস্থায় রাজাকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, এ ঘটনায় ইলিয়াস এবং তার ছেলে রবিউলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে দুপচাঁচিয়ায় ঘুমন্ত অবস্থায় আফরুজা বেগম নামে এক গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার দিবাগত রাতে হত্যাকাণ্ডটি ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিহতের স্বামী আব্দুল মান্নান পেশায় ঝাড়ু বিক্রেতা। পেশার কারণে তিনি বেশিরভাগ সময় বাসার বাইরে অবস্থান করেন। ৮-১০ দিন পরপর বাড়িতে আসেন। ঘটনার রাতে আব্দুল মান্নান বাড়িতে ছিলেন না। তাদের বড় মেয়ে নানির বাড়ি বেড়াতে যায়। ছোট মেয়ে মিলিকে (৫) নিয়ে বুধবার দিবাগত রাতে ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে আফরুজা।

বৃহস্পতিবার সকালে মেয়ে মিলি ঘুম থেকে উঠে মায়ের গলাকাটা লাশ দেখে প্রতিবেশীদের খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শহিদুল ইসলাম জানান, ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা তাকে ধর্ষণের পর গলাকেটে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।  


About

Popular Links