Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘পানি পড়া’ খাইয়ে তরুণীকে ধর্ষণ

কেউ জাদু করার কারণে তরুণীর বিয়ের প্রস্তাব আসে না বলে অভিযুক্ত হাসেম জানায়

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৪৯ পিএম

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় “পানি পড়া” খাইয়ে এক পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে কবিরাজ পরিচয়দানকারী এক যুবকের বিরুদ্ধে। 

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) উপজেলার মাওনা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই তরুণী শ্রীপুর থানায় কবিরাজ আবুল হাসেমকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেছেন।  

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন মামলার বরাত দিয়ে বলেন, ভুক্তভোগী ওই তরুণী স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। প্রায় আড়াই মাস আগে উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের একটি ভাড়া বাড়িতে ওঠেন তিনি। ওই বাড়িতে কবিরাজ পরিচয়দানকারী যুবকও ভাড়া থাকে। একই বাড়িতে ভাড়া থাকায় তাদের পরিচয় হয়।

গত মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ভুক্তভোগী তরুণীকে “কথা আছে” বলে আবুল হাসেম তার ঘরে ডেকে নেয়। এসময় কেউ জাদু করার কারণে তরুণীর বিয়ের প্রস্তাব আসে না বলে হাসেম জানায়। পরে একটি গ্লাসে পানি ভরে ভুক্তভোগীকে পান করতে দেয় সে। ওই তরুণী পানি পান করেন এবং তার ঘরে চলে যান। এরপর অসুস্থ বোধ করেন তিনি। এর কিছুক্ষণ পরেই তরুণীর ঘর থেকে আবুল হাশেম তাকে ডেকে পাশের খালি ঘরে নিয়ে যায় এবং দরজা আটকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। 

ওসি আরও বলে, পরে ওই তরুণী দরজা খুলে ঘর থেকে বের হয়ে কান্নাকাটি শুরু করেন। ঘটনাটি কাউকে জানালে তাকে খুন করার হুমকিও দেয় আবুল হাশেম। এ সময় ভুক্তভোগীর ফুফু ওই বাসায় গেলে আবুল হাশেম চলে যায়।

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, শুক্রবার রাতে তরুণী নিজে বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার দায়েরের পর থেকে অভিযুক্ত কবিরাজ পরিচয়দানকারী আবুল হাশেম পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

About

Popular Links