Sunday, June 16, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভাড়া না পেয়ে ভাড়াটিয়াকে পিটিয়ে হত্যা, রিমান্ডে ৩

করোনাভাইরাস মহামারিতে কাজ করতে না পারায় বাড়ি ভাড়া ঠিকমত পরিশোধ করতে পারেননি ফয়েজ

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৬:১৩ পিএম

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে বকেয়া বাড়িভাড়া পরিশোধ করাকে কেন্দ্র করে ভাড়াটিয়াকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার বাড়িওয়ালাসহ তিনজনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শনিবার (২৪ অক্টোবর) সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবীরের আদালতে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়। এর আগে পুলিশ গ্রেফতার ব্যক্তিদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে। 

এর মধ্যে বাড়িওয়ালা উম্মে কুলসুমকে একদিন, ভাড়াটিয়া মহিউদ্দিনকে তিন দিন ও তার স্ত্রী শিরিনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। 

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।  

মামলা সূত্রে জানা যায়, উম্মে কুলসুমের বাড়িতে কয়েক বছর যাবৎ মো. ফয়েজ তার স্ত্রী-সন্তান নিয়ে বসবাস করছিলেন। তিনি পেশায় একজন মাছ ব্যবসায়ী। করোনাভাইরাস মহামারিতে কাজ করতে না পারায় বাড়ি ভাড়া ঠিকমত পরিশোধ করতে পারেননি ফয়েজ। এতে করে গত সাত মাসে ৭ হাজার টাকা ভাড়া বকেয়া হয়ে যায়। এই বকেয়া বাড়ি ভাড়া দ্রুত পরিশোধ করতে গত বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ির মালিক উম্মে কুলসুম ভাড়াটিয়া মো. ফয়েজ ও তার স্ত্রী রোজিনা বেগমকে চাপ দেন। এতে ৭ হাজার টাকা বকেয়ার মধ্যে ৪ হাজার টাকা পরিশোধ করেন ফয়েজ। বাকি ৩ হাজার টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়।

শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে বাড়ির মালিক উম্মে কুলসুম ও অপর ভাড়াটিয়া মহিউদ্দিন ও তার স্ত্রী শিরিনা মিলে বকেয়া ৩ হাজার টাকা পরিশোধ করতে না পারলে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিবে বলে ফয়েজ ও তার স্ত্রী রোজিনাকে গালমন্দ করে। এক পর্যায় উভয়ের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এ সময় বাড়ির মালিক উম্মে কুলসুম ও তার সহযোগী ভাড়াটিয়া মহিউদ্দিন, তার স্ত্রী শিরিনা ফয়েজকে এলোপাথাড়ি মারধর শুরু করে। এর এক পর্যায়ে ফয়েজ অজ্ঞান হয়ে যান।

এতে ফয়েজের স্ত্রী রোজিনা বেগম চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে ফয়েজকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

About

Popular Links