Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

খাবার পৌঁছে দিতে গিয়ে দোকানির কাছেই ধর্ষণের শিকার শিশু

অসুস্থ থাকায় স্বামীর কাছে দুপুরের খাবার পৌঁছে দিতে শিশুটিকে অনুরোধ করে অভিযুক্ত ব্যক্তির স্ত্রী

আপডেট : ০৪ নভেম্বর ২০২০, ১০:২৭ এএম

ফেনী সদরে একটি চুল কাটার দোকানে ১০ বছরের এক মেয়ে শিশুকে আটকে ধর্ষণের অভিযোগে মানিক চন্দ্র দাস নামে একব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) ডিএনএ পরীক্ষার জন্য অভিযুক্ত মানিক দাসকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ ঘটনায় একইদিন রাতে শিশুটির মা বাদী হয়ে ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ ও নির্যাতিতার পরিবার সূত্র জানায়, মানিক দাস ও শিশুটির পরিবার দীর্ঘদিন স্থানীয় একটি ভাড়াবাড়িতে থাকে। ১৫ অক্টোবর অসুস্থ থাকায় দুপুরের খাবার পৌঁছে দিতে শিশুটিকে অনুরোধ করে অভিযুক্ত ওই নাপিতের স্ত্রী। এসময় ৮ বছর বয়সী ছোটবোনও শিশুটির সঙ্গে ছিল। দুইবোন দোকানে খাবার পৌঁছে দিতে গেলে দাস ছোটবোনকে সিঙ্গারা আনার জন্য বাইরে পাঠায় মানিক। এসময় বড়বোনকে আটকে রেখে তার মা-বাবাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করে সে। কিছুক্ষণ পর ছোটবোন ফিরে এসে দোকান বন্ধ দেখে দরজায় ধাক্কা দেয়। দোকান খোলার পর বোনকে পড়ে থাকতে বাসায় ফিরে মা-বাবাকে জানায়। এরপর স্থানীয়ভাবে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) ওমর হায়দার জানান, ঘটনাটি জানামাত্রই পুলিশ অভিযুক্ত মানিক দাসকে আটক করে নিয়ে আসে। ফেনী জেনারেল হাসপাতালে শিশুটির শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। 


About

Popular Links