Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষদিন কাল

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময় ৩০ নভেম্বর পর্যন্তই থাকছে। নির্ধারিত সময়ে জমা দিতে না পারলে, সংশ্লিষ্ট কর অফিসে আবেদন করা যাবে’

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১২:৫৪ পিএম

চলতি বছর আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় আর বাড়ানো হবে না বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা রহমাতির মুনিম। 

তিনি বলেন, ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত রিটার্ন জমা ১৩ লাখ ২০ হাজার। পরিশোধিত কর ২ হাজার ৩৮৭ কোটি টাকা। তবে আমাদের সক্ষমতা বাড়লেও কাঙ্খিত মাত্রায় আয়করের ক্ষেত্র বাড়েনি বলে জানান তিনি।

রবিবার (২৯ নভেম্বর) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে মাসব্যাপী করসেবা প্রদান এবং ৩০ নভেম্বর জাতীয় আয়কর দিবস ২০২০ উদযাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, “রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময় ৩০ নভেম্বর পর্যন্তই থাকছে। নির্ধারিত সময়ে যারা আয়কর রিটার্ন দিতে পারবেন না, তারা সংশ্লিষ্ট কর অফিসে আবেদন করতে পারবেন। তবে ২% জরিমানা বিষয়টি বাধ্যতামূলক নয়। গ্রাহক সঠিক সময়ে কেন রিটার্ন জমা দিতে পারেনি। তার যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারলে জরিমানা মওকুফ করা হবে। তবে কমিশনারের কাছে যদি কারণ যৌক্তিক মনে না হয়, তবে জরিমানা গুণতে হবে।”

তিনি জানান, টিআইএনধারীদের রিটার্ন দেওয়া বাধ্যতামূলক। না দিলে জরিমানা গুণতে হবে। আয়কর আইন অনুযায়ী উপকর কমিশনার করদাতার আবেদনের প্রেক্ষিতে রিটার্ন জমার জন্য সময় দিতে পারে। তবে করদাতাকে ২% হারে জরিমানা দিতে হবে।

ভবিষ্যতে রিটার্ন জমার প্রক্রিয়া সহজ করা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, রিটার্ন সহজ করার চিন্তা করা হচ্ছে। এবার যারা রিটার্ন দেবে তাদের জন্য এক পাতার আবেদন ফরম করা হয়েছে। আর সঠিক কর দেওয়া কিভাবে সবাইকে আনা যায় সেটা করা হচ্ছে।

চেয়ারম্যান আবু হেনা রহমাতুল মুনিম বলেন, “আমাদের মোট টিআইএনধারী করদাতা সংখ্যা ৫০ লাখ ৭২ হাজার ৫৬৭ জন। গত বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) পর্যন্ত দাখিলকৃত রিটার্নের সংখ্যা ১৩ লাখ ২০ হাজার ৮২৫টি। যা গতবছর ছিল ১২ লাখ ৫৭ হাজার ৬২৬টি। আর ওই সময়ে রিটার্নের সঙ্গে পরিশোধিত কর ২ হাজার ৪৮৭ টাকা। যা গতবছর ছিল ৩ হাজার ৫৮০ টাকা।”

About

Popular Links