Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজশাহীর পদ্মার চরাঞ্চলে ৪১ প্রজাতির পাখি শনাক্ত

জরিপ চলাকালে ৪১টি প্রজাতির মোট ২ হাজার ৭০৯টি পাখি গণনা করা হয়। এরমধ্যে ২৮টি পরিযায়ী পাখি রয়েছে

আপডেট : ০৫ জানুয়ারি ২০২১, ০৮:১৮ পিএম

  রাজশাহীর পদ্মা নদীর বিভিন্ন চরাঞ্চলে জরিপ চালিয়ে ৪১ প্রজাতির পাখি খুঁজে পেয়েছে একটি গবেষক দল। 

বাংলাদেশ বন বিভাগের সহযোগিতায় ওয়াইল্ড বার্ড মনিটরিং প্রোগ্রামের অধীনে বাংলাদেশ বার্ডস ক্লাব, রাজশাহী বার্ড ক্লাব ও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচার (আইইউসিএন) পদ্মা নদীর ৩৯ কিলোমিটার চর এলাকায় এই জরিপ পরিচালনা করে। 

আইইউসিএনের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার ও গবেষক সারওয়ার আলম দীপু জানান, চর খানপুর, চর খিদিরপুর, ১০ নাম্বার চর, চারঘাট ও মধ্যচর এলাকায় বেশিরভাগ পাখি প্রজাতি দেখা গেছে। 

জরিপ চলাকালে ৪১টি প্রজাতির মোট ২ হাজার ৭০৯টি পাখি গণনা করা হয়। এরমধ্যে ২৮টি পরিযায়ী পাখি রয়েছে।

অতিথি ফুলুরি হাঁস (Falcated Duck)। মো. ইমরুল কায়েস/সংগৃহীত


দিপু বলেন, পদ্মা নদীর বিভিন্ন চরাঞ্চল প্রাকৃতিক সম্পদে পরিপূর্ণ হওয়ায় এখানে বসবাস ও খাদ্যের কারণে তা পাখিদের আকর্ষণ করে। তাই পদ্মা নদী অববাহিকার চরভূমির উপর এই জরিপ করা হয়।


আরও পড়ুন - শকুন সংরক্ষণে বাংলাদেশ, কী করছে সরকার? 


তিনি জানান, এই জাতীয় নদী অঞ্চলের আবাসস্থল পাখি প্রজাতির ব্যাপক বৈচিত্রে সহায়তা করে, এদের মধ্যে অনেকগুলোই বালুচরে এবং অন্যগুলো ঘাসে বা খালের মধ্যে বাসা বাঁধে।

শীত মৌসুমে বেশ কিছু পরিযায়ী পাখি পদ্মার চরাঞ্চলে আসে। তবে অতিলোভী কিছু মানুষ অর্থ উপার্জনের জন্য এইসব পাখি শিকার করে। গত বছর ৩৭টি প্রজাতির মোট ৪ হাজার ২৫টি পাখি গণনা করা হয় এবং এর মধ্যে ২৭টি পরিযায়ী পাখি ছিল।

রাজশাহী বার্ড ক্লাবের সদস্য নূর-ই-সৌদ পদ্মা নদী কূলকে পাখিদের জন্য একটি অভয়ারণ্য হিসেবে ঘোষণা করার আহ্বান জানান।


আরও পড়ুন - দিনভর বাঘের আতঙ্ক, পরে জানা গেল বন বিড়াল


আরও পড়ুন - মুন্সীগঞ্জে মেছো বিড়াল আটক, বন কর্মকর্তার হস্তক্ষেপে মুক্ত


আরও পড়ুন - তক্ষক দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নিত তারা

About

Popular Links