Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রবাসীকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়, গ্রেপ্তার ৩

সৌদি আরব প্রবাসীকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে অজ্ঞাত একনারী ও ইয়াবা-সহ ছবি তুলে, তা ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ১ লাখ ৫৩ হাজার টাকা মুক্তিপণ আদায় করা হয়

আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০২১, ১১:২০ এএম

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার খিলপাড়া ইউনিয়নের মজ্জতপুর এলাকা থেকে সৌদি আরব প্রবাসীকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করার পর অজ্ঞাত একনারী ও ইয়াবা-সহ ছবি তুলে সেগুলো ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ১ লাখ ৫৩ হাজার টাকা মুক্তিপণ আদায় করার অভিযোগ উঠেছে। 

শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) এঘটনায় ছালা উদ্দিন কামরান ওরফে আকাশ ও তার দুই সহযোগীকে আটক করে বিকালে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

আটককৃতরা হলো, চাটখিল উপজেলার পরকোট ইউনিয়নের পশ্চিম শোশালিয়া এলাকার ছালা উদ্দিন কামরান ওরফে আকাশ (২০), লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার দরবেশপুর ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের বাবু হোসেন (৩০) ও একই বাড়ির দিদার হোসেন জনি (১৮)।

প্রবাসীর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ ডিসেম্বর সকাল ১০টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে চাটখিল বাজারের উদ্দেশ্যে বের হন প্রবাসী মো. মাসুদ। যাওয়ার পথে তিনি চাটখিল-খিলপাড়া সড়কের মজ্জতপুর এলাকা থেকে একটি অটোরিকশায় ওঠেন। ওইসময় সিএনজি’তে একজন নারী ও পুরুষ ছিলো। কিছু পথ যাওয়ার পর পাশের ওই নারী ও পুরুষ মাসুদকে ছুরির ভয় দেখিয়ে চোখ, মুখ ও হাত ও বেঁধে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। ওইস্থানে আরও ১০/১২জন তাদের সাথে যুক্ত হয়ে মাসুদের ব্যবহৃত মোবাইলটি নিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম ও বিবস্ত্র করে ওই নারীর সাথে অশ্লীল ছবি তোলে। 

ছবিগুলো তার পরিবারের লোকজনসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে মুক্তিপণ বাবদ ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। এরপর মাসুদ তার পরিবার ও আত্মীয় স্বজনদের সাথে যোগাযোগ করে বিকাশসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ১ লাখ ৫৩ হাজার টাকা অপহরণকারীদের দেয়। তবে নির্যাতনের একপর্যায়ে মাসুদ অসুস্থ হয়ে পড়লে, অপহরণকারীরা ওইদিন রাতে একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশায় চোখ বাঁধা অবস্থায় তাকে দশঘরিয়া বাজারের পূর্ব পাশের সড়কে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, এঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে প্রবাসী মো. মাসুদ বাদী হয়ে চারজনের নাম উল্লেখপূর্বক এবং ৪/৫ জনকে অজ্ঞাতনামাকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করে। 

মামলায় উল্লেখিত বিকাশ নাম্বারের সূত্র ধরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার সকালে তিন আসামিকে আটক করা হয়। পরে, ওইদিন বিকালে তাদের আদালতে হাজির করলে, আদালত তাদের জেল-হাজতে প্রেরণ করেন।

About

Popular Links