Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

এখনো জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশ: যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ওই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের এই বৈশ্বিক প্রতিবেদনে গত বছরের উল্লেখযোগ্য সাফল্য ও চ্যালেঞ্জ তুলে ধরা হয়।

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৮:৪৬ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের ২০১৭ সালের সন্ত্রাসবাদ বিষয়ক প্রতিবেদনে বলে হয়েছে, আগের বছরের তুলনায় ২০১৭ সালে বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলা কম হয়েছে। তবে হামলা কমলেও বাংলাদেশ এখনো আলকায়েদার ভারতীয় শাখা এবং আইএসের হামলার ঝুঁকি রয়েছে। 

এই বার্ষিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের মার্চ মাসে তিনটি সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয় বাংলাদেশ। 

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ওই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের এই বৈশ্বিক প্রতিবেদনে গত বছরের উল্লেখযোগ্য সাফল্য ও চ্যালেঞ্জ তুলে ধরা হয়।

সেখানে বলা হয়েছে, যদিও এসব হামলার জন্য স্থানীয় জঙ্গিরা দায়ী বলে দেশটির সরকার বলছে, কিন্তু ' ভারতীয় উপমহাদেশের আল-কায়েদা' এবং আইসিস অন্তত ৪০টি হামলার দায় স্বীকার করেছে। এমনকি আইসিস এবং একিউআইসেরে প্রকাশনা, ভিডিও ও ওয়েবসাইটে বাংলাদেশী জঙ্গিদের এসব কর্মকাণ্ড প্রকাশ করা হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে ২০১৭ সালের মার্চ মাসের তিনটি জঙ্গি হামলার বিবরণ দেয়া হয়েছে। এগুলো হলো ঢাকায় র্যাদবের একটি অস্থায়ী ক্যাম্পে সন্দেহভাজন আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার চেষ্টা, যাতে ওই হামলাকারী নিহত হয়। এছাড়া ঢাকায় একটি পুলিশ চেকপোস্টে হামলার চেষ্টা এবং সিলেটের আতিয়া মহলের দুইটি বোমার বিস্ফোরণ, যাকে আইসিসের ঘাঁটি বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বারবার দাবি করে আসছেন, দেশে যেসব জঙ্গিরা হামলা চালিয়েছে তাদের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলোর কোনও সম্পৃক্ততা নেই। 


About

Popular Links