Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ছয়জন মিলে ধর্ষণ

একই বাড়ির জামাল হোসেনের ছেলে ইজিবাইকচালক টিটু তাকে কৌশলে ইজিবাইকে তুলে নিয়ে পাশের একটি বাগানে ধর্ষণ করে

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:৩৮ পিএম

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলায় শ্রবণ প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) গ্রেফতার হওয়া চারজনকে চাঁদপুর আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।  গত ১১ জানুয়ারি উপজেলার সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। 

গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিরা হলো-- টিটু (২০), শিপন (২৫), মিজানুর রহমান রিপন (৪৫) মালেক (৪৫)। এ ঘটনায় অপর দুই অভিযুক্ত আল আমিন (২৬) ও মানিক হোসেন এখনও পলাতক রয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে ধর্ষণের শিকার কিশোরীর মা বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় “নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে” মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগপত্রে জানা গেছে, ১১ জানুয়ারি বিকেলে নির্যাতিতা কিশোরী বুকের ব্যথার ওষুধ কেনার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। এ সময় একই বাড়ির জামাল হোসেনের ছেলে ইজিবাইকচালক টিটু তাকে কৌশলে ইজিবাইকে তুলে নিয়ে পাশের একটি বাগানে ধর্ষণ করে। 

এরপর রাত হয়ে গেলে টিটু ও তার অন্য সহযোগীরা কিশোরীকে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন এলাকায় এবং পাশের বাগানে নিয়ে আবারো ধর্ষণ করে। পরে ওই বাগানের পাশে তাকে ফেলে রাখা হয়।

আশপাশের লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে তার বাড়িতে পৌঁছে দেয়। পরিবারের লোকজনকে ঘটনা জানালে স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করেন এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি। পরে সোমবার রাতে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ বিষয়টি জানতে পারে। 

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহিদ হোসেন জানান, ১৮ জানুয়ারি রাতে ঘটনাটি জানার পরপর তিনি অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত তিনজনকে এবং মঙ্গলবার দুপুরে আরেকজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন। বাকি দু’জনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

About

Popular Links