Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

গাজীপুরে স্বামীর দেওয়া আগুনে পুড়ে নারীর মৃত্যু

অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় ১১ দিন হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়েন তিনি

আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০২:০৩ পিএম

গাজীপুরে স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ হয়ে ১১ দিন হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন মর্জিনা বেগম (৪০)। 

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় স্বামী স্বাধীন আলীকে (৫০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মর্জিনা বেগম টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারের উপজেলার ইয়াসিন গ্রামের বাদশা মিয়ার মেয়ে এবং সিরাজগঞ্জ সদরের জয়নগর এলাকার মৃত হরফ আলীর ছেলে স্বাধীন আলীর স্ত্রী।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি’র) কোনাবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সিদ্দিক জানান, গাজীপুর মহানগরের কোনাবাড়ীর (সেলিম নগর) এলাকার মমতাজের ভাড়া বাড়িতে সপরিবারে থাকতেন স্বাধীন। গত রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে দাম্পত্য কলহের জেরে স্ত্রী মর্জিনার গায়ে আগুন দেয় স্বাধীন। প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কেনাবাড়ী এলাকার শরীফ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর স্বজনেরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং পরে থেকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করেন। সেখানে ১১ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর মারা যান মর্জিনা।

ওসি আবু সিদ্দিক জানান, স্বামী স্বাধীন আলীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।  


About

Popular Links