Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চাবি হারিয়ে যাওয়ার ৪ ঘণ্টা দেরীতে ছাড়লো সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস

'সকাল ছয়টার দিকে ট্রেনের ইঞ্জিন চালাতে গিয়ে চালক রবিউল ইসলাম দেখেন চাবিটা নেই’

আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৯:৪৩ পিএম

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের চাবি হারিয়ে যাওয়ার প্রায় চার ঘণ্টা পর ছেড়ে গেছে ঢাকামুখী ট্রেনটি। নির্দিষ্ট সময়ের পরে ট্রেন ছাড়ায় ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা। অনেকেই এই ট্রেনে গিয়ে ঢাকায় অফিস করার কথা থাকলেও দেরীতে ট্রেন ছাড়ায় তারা অফিস ধরতে পারেননি। এ কারণে অনেক যাত্রীই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এদিকে এ ঘটনায় পাকশী রেলওয়ের সহকারি পরিবহন কর্মকর্তা আব্দুস সোবাহানকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার (ভারপ্রাপ্ত) শাওন কবির বলেন, সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের চাবি খোয়া যাওয়ার ঘটনা তদন্তে সহকারি পরিবহন কর্মকর্তা (পাকশী) আব্দুস সোবহানকে আহ্বায়ক করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, সহকারী সংকেত প্রকৌশলী (পাকশী) কামরুল হাসান, সহকারি যন্ত্র প্রকৌশলী (লোক) ঈশ্বরদী ও সহকারি কমান্ড্যান্ট রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী। এ কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। এরইমধ্যে তদন্ত কমিটি তাদের কাজ শুরু করে দিয়েছে।   

জানা গেছে, সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি বাজার স্টেশনেই থাকে। প্রতিদিন সকাল ছয়টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। রাতে বাজার স্টেশন প্লাটফর্মে ট্রেন রেখে গেলে কে বা কারা ইঞ্জিন রুমের জানালা খুলে ট্রেনের রিভারসেল হ্যান্ডেলটি (চাবি) চুরি করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে সকাল পৌনে আটটার দিকে বিকল্প ব্যবস্থায় অন্য একটি ইঞ্জিনের সাহায্যে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি জামতৈলে নেওয়া হয়। পরবর্তীতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আসা বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনে বিকল্প চাবি আনলে ৯টা ৪৮ মিনিটে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। 

সিরাজগঞ্জের বাজার স্টেশন মাস্টার গোলাম হোসেন জানিয়েছেন, "বিকল্প ব্যবস্থায় অন্য একটি ইঞ্জিনের সাহায্যে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি জামতৈলে নেওয়া হয়। সেখান থেকে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে চাবি নিয়ে তারপর সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।"

ট্রেনের পরিচালক আফজাল হোসেন বলেন, "সকাল ছয়টার দিকে ট্রেনের ইঞ্জিন চালাতে গিয়ে চালক রবিউল ইসলাম দেখেন চাবিটা নেই। পরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকাগামী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনে বিকল্প চাবি আসার পর ঢাকার ছেড়ে যায় ট্রেনটি।"

About

Popular Links