Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘মানুষের নিরাপত্তার জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যখন একজন সাধারণ মানুষ ডিজিটাল আক্রমণের শিকার হন, তিনি কোন আইনে প্রতিকার পাবেন? এজন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’

আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০:৪৮ এএম

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন হয়েছে বাংলাদেশের মানুষকে “ডিজিটাল নিরাপত্তা” দেওয়ার জন্য। আর এই আইনের অপব্যবহার যাতে না হয়, সেবিষয়ে সরকার “সচেতন” আছে।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে চট্টগ্রামের দেওয়ানজি পুকুরপাড়ে নিজ বাড়িতে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে এই মন্তব্য আসে।

তিনি বলেন, “মুশতাক আহমেদের মৃত্যুটা সত্যিই অনভিপ্রেত। আমিও তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করছি। সেখানে কারা কর্তৃপক্ষের কোনো গাফেলতি ছিল কিনা সেটা খুঁজে দেখা যেতে পারে।”

উল্লেখ্য, নানা পক্ষের আপত্তি ও সাংবাদিকদের উদ্বেগের মধ্যে ২০১৮ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদে পাস হয় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন। 

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ব্যাপক সমালোচিত ৫৭সহ কয়েকটি ধারা বাতিল করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়ন করা হলেও পুরনো আইনের বাতিল হওয়া ধারাগুলো নতুন আইনে রেখে দেওয়ায় এর অপপ্রয়োগের শঙ্কা থেকেই যায়। দেশের সাংবাদিক, আইনজীবী, বুদ্ধিজীবীদের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলোও সেসময় এর তীব্র প্রতিবাদ জানায়।

করোনাভাইরাস সঙ্কটের মধ্যে গতবছরের ৬ মে মুশতাককে তার লালমাটিয়ার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করার পর ওই আইনেই তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এরপর বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে গাজীপুরের কাশিমপুরের হাই সিকিউরিটি কারাগারে মৃত্যু হয় ৫৩ বছর বয়সী মুশতাকের। 

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, “ডিজিটাল বিষয়টা আজ থেকে ১০-১৫ বছর আগে ছিল না, সুতরাং ডিজিটাল নিরাপত্তার বিষয়টিও ছিল না। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ অনলাইনে যখন একজন সাংবাদিকের চরিত্র হনন করা হয়, একজন গৃহিনীকে যখন অপবাদ দেওয়া হয়, একজন সাধারণ মানুষ যখন ডিজিটাল আক্রমণের শিকার হন, তিনি কোন আইনে প্রতিকার পাবেন? তখন কোন আইনের বলে সে নিরাপত্তা পাবে? সেজন্য একটা আইনের দরকার। এই জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন।”

তবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার যাতে না হয়, সেবিষয়ে সরকার “সচেতন” রয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, “বিশেষ করে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে যাতে এই আইনের অপব্যবহার না হয়, সেজন্য তথ্য মন্ত্রণালয় ও আমি ব্যক্তিগতভাবে সবসময় সচেতন আছি এবং কোনোখানে এধরনের ঘটনা ঘটলে খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হয়ে থাকে।”

About

Popular Links