Friday, May 31, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মায়েরও মৃত্যু

বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে শিশু সোনালী চিৎকার করলে মা পাপিয়া ছুটে গিয়ে তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। তখন পাপিয়াও বিদ্যুৎপৃষ্ট হন

আপডেট : ২১ মার্চ ২০২১, ০৬:৩৯ পিএম

বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (২১ মার্চ) দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম আলোহালী গ্রামের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- আলোহালী গ্রামের ইউনুস আলীর ছয় বছরের শিশুকন্যা সোনালী আকতার ও তার স্ত্রী পাপিয়া সুলতানা (৩৬)। 

দুপচাঁচিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান আলী এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্বজনরা জানান, রবিবার বেলা আড়াইটার দিকে পাপিয়া তার শিশু মেয়ে সোনালী আকতারকে নিয়ে বাড়ির বাথরুমে গোসল করতে যান। এর আগে বারান্দায় থাকা সাবমারসিবল পাম্পের সুইচ দিয়ে যান। গোসল শেষে বালতি ভরে যাওয়ায় পাপিয়া তার মেয়েকে সুইচ বন্ধ করতে বলেন। তখন শিশু সোনালী ভেজা শরীরে বারান্দার দেওয়ালে থাকা পাম্পের সুইচ বন্ধ করতে যায়। সুইচে হাত দেওয়ার সাথে সাথে সে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়। তার চিৎকারে মা পাপিয়া ছুটে গিয়ে মেয়েকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। তখন পাপিয়াও বিদ্যুৎপৃষ্ট হন। 

পরে প্রতিবেশিরা টের পেয়ে অচেতন মা-মেয়েকে উদ্ধার করে দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

দুপচাঁচিয়া থানার ওসি হাসান আলী বলেন, “কোনো অভিযোগ না থাকায় বিদ্যুৎপৃষ্টে মৃত মা ও মেয়ের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ইউনুস আলী থানায় অপমৃত্যু মামলা করেছেন।”

About

Popular Links