Friday, May 31, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাবি প্রশাসনের অপসারণের দাবিতে ফের আন্দোলনে শিক্ষকরা

দেড় মাস আন্দোলন বন্ধ থাকলেও রবিবার কর্মসূচি দিয়ে ফের আন্দোলনে নামার ইঙ্গিত দিয়েছেন শিক্ষকেরা

আপডেট : ২১ মার্চ ২০২১, ০৯:১০ পিএম

বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির ঘটনায় অভিযুক্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) ও উপউপাচার্যসহ (প্রো-ভিসি) বর্তমান প্রশাসনের অপসারণের দাবি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের একাংশ। রবিবার (২১ মার্চ) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে “দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকবৃন্দ” এর ব্যানারে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে শিক্ষকেরা এ দাবি তোলেন। 

বর্তমান প্রশাসনের অপসারণের দাবিতে দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকবৃন্দের ব্যানারে ২০১৯ সাল থেকে আন্দোলন করে আসছে প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের একাংশ। মাঝে দেড় মাস আন্দোলন বন্ধ থাকলেও রবিবার কর্মসূচি দিয়ে ফের আন্দোলনে নামার ইঙ্গিত দিয়েছেন তারা।

কর্মসূচিতে শিক্ষকেরা বলেন, ভিসি শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেওয়ার চেয়ে নিয়োগ নিয়েই বেশি আগ্রহী। বর্তমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভা অপূর্ণ। যারা আছেন তারা রুটিন দায়িত্ব পালন করছেন। যারা নিয়োগ বাণিজ্যের জন্য লোক ধরে নিয়ে আসছে ভিসি তাদের নিয়ে মিটিং করছেন। তার কথার সঙ্গে কাজের সামঞ্জস্য নেই। বর্তমান ভিসি, প্রো-ভিসির বিভিন্ন অনিয়মের প্রমাণ মিলেছে। আমরা এ প্রশাসনের অপসারণ চাই।  

এ সময় দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন শিক্ষকেরা। 

বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক পুরনজিত মহালদারের সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন ভূ-তত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম, ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ। মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের অর্ধ-শতাধিক শিক্ষক অংশ নেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি বিরোধী শিক্ষকেরা সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে বর্তমান প্রশাসনের অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ করেন। এসব অভিযোগ তদন্তে বর্তমান ভিসি অধ্যাপক সোবহান ও প্রো-ভিসি অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়াসহ প্রশাসনের কয়েজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রমাণ পায় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন। অভিযোগের পর থেকেই শিক্ষকেরা বর্তমান প্রশাসনের অপসারণ চেয়ে আন্দোলন করে আসছিলেন।

About

Popular Links