Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের প্বার্শপ্রতিক্রিয়া হিসেবে রক্ত জমাট বাঁধা অন্তর্ভুক্তির আহ্বান ইইউ'র

ইএমএ জানিয়েছে, ভ্যাকসিনটি প্রয়োগে ঝুঁকির চেয়ে উপকার বেশি

আপডেট : ০৭ এপ্রিল ২০২১, ১০:১১ পিএম

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের সঙ্গে রক্ত জমাট বাঁধার যোগসূত্র পেয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা-ইএমএ। অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার তালিকায় অস্বাভাবিক রক্তে জমাট বাঁধার ঘটনা অন্তর্ভুক্ত করা উচিত বলে জানিয়েছে তারা। 

বুধবার (৭ এপ্রিল) ইউরোপীয় মেডিসিনস এজেন্সির (ইএমএ) বরাত দিয়ে এ তথ্য তুলে ধরেছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি। 

ইএমএ জানিয়েছে, ভ্যাকসিনটি প্রয়োগে ঝুঁকির চেয়ে উপকার বেশি। 

ইএমএর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়া এবং প্লাটিলেট কমে যাওয়ার একটি ব্যাখ্যা হতে পারে-দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার সাড়া দেওয়া। রক্তের ঘনত্ব কমানোর জন্য যেসব রোগীর শরীরে হ্যাপারিন ইনজেকশন প্রয়োগ করা হয়, তারাও এমন প্বার্শপ্রতিক্রিয়া দেখতে পারেন।  

ইউরোপীয় ইউনিয়নে ২ কোটির বেশি ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে। ইএমএ-এর পক্ষ থেকে রক্তে জমাট বাঁধার ৮৬টি ঘটনা পর্যালোচনা করা হয়েছে। 

বুধবারের পর্যালোচনায় তারা জানিয়েছে, এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সুনির্দিষ্ট কোনও যোগসূত্র পাওয়া যায়নি। আক্রান্তদের মধ্যে ৬০ বছরের কম বয়সী নারী রয়েছেন, আছেন পুরুষরাও।

এ বিষয়ে ইএমএ’র নির্বাহী পরিচালক এমার কুক বলেন, “আমাদের নিরাপত্তা কমিটি নিশ্চিত করেছে করোনাভাইরাস ঠেকাতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ঝুঁকির তুলনায় অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের উপকার বেশি।”

তবে অ্যাস্ট্রাজেনেকার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তাদের গবেষণায় রক্তে জমাট বাঁধার সঙ্গে ভ্যাকসিনের কোনও যোগসূত্র পাওয়া যায়নি।

About

Popular Links