Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জাতীয় নির্বাচনে সেনাবাহিনী থাকবে: সিইসি

আপডেট : ০৬ জুন ২০১৮, ০৯:৩৮ পিএম

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেছেনজাতীয় নির্বাচনে সেনাবাহিনী থাকবে। তবে বরিশালসহ কোনও সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে না। বরিশাল ও ফরিদপুর অঞ্চলের নির্বাচন কর্মকর্তাদের ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ওপর প্রশিক্ষণ কর্মসূচি উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। বুধবার (০৬ জুন) বেলা ১১টায় বরিশাল মহানগরের সার্কিট হাউসের সভাকক্ষে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

সব দলের অংশগ্রহণে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেনজাতীয় নির্বাচনে কোনও বিশেষ দলের অংশগ্রহণের জন্য আমরা আলাদা কোনও উদ্যোগ নিতে পারবো না। নির্বাচন যাতে প্রতিযোগিতামূলক হয়সে জন্য আমরা সব দলকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান জানাই এবং সব সময় জানিয়ে আসছি। বিএনপি নির্বাচনে আসবে এটা আমরা প্রত্যাশা করি। 

ইভিএম ব্যবহার প্রসঙ্গে তিনি বলেনপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন আমরা পুরনো পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ করে কোনও বিড়ম্বনা পোহাতে চাই না। এই পদ্ধতি নিয়ে নিরীক্ষা করে সুফল পেয়েছি। তাই আমরা পর্যায়ক্রমে এর ব্যবহার করতে চাই। আমরা নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে চাই। এজন্য ইভিএম পদ্ধতির গুরুত্ব অপরিসীম। এই পদ্ধতির সুফল ও প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রচারের জন্য তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানান।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি আরও বলেনইভিএম পুরোপুরি চালু হলে ভোট নিয়ে অভিযোগ বন্ধ হবে। তখন আর ভোট নিয়ে অভিযোগের সুযোগই থাকবে না। এ কারণে আমারা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ইভিএম প্রদর্শনের মাধ্যমে এটা যে সঠিকভাবে কাজ করে তা প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করছি। সকলের সমর্থন ও আস্থা থাকলেই জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। তবে সবগুলোতে সম্ভব হবে না।

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেনহাতেগোনা কয়েকটি কেন্দ্র ছাড়া সেখানে বাকি সব কেন্দ্রে সুন্দরভাবে ভোট হয়েছে। খুলনায় ২৮৯টির মধ্যে তিনটি কেন্দ্রে অনিয়ম হয়েছে। সেই তিনটা কেন্দ্র আমরা বন্ধ করে দিয়েছি। আরও কয়েকটা কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমারা সে ব্যাপারে অনুসন্ধান করছি। এখন আমরা শুধু বরিশালে নয়অন্যান্য সিটি করপোরেশনেও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছি। খুলনায় যে ভুলত্রুটি ধরা পড়েছে সেগুলো কীভাবে শোধরানো যায় তা নিয়ে আমরা কাজ করছি।

বরিশালের জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণ কর্মসূচি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইভিএম বিষয়ক উপস্থাপনা করেন জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার শহিদুজ্জামাননির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মোস্তফা ফারুকবরিশালের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমানবরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার (ভারপ্রাপ্ত) মাহফুজুর রহমান প্রমুখ।

About

Popular Links