Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অস্ত্র ও যৌন উত্তেজক সিরাপসহ গ্রেফতার ২ যুবলীগ নেতা

গ্রেফতার দু্জনই পাবনা জেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য

আপডেট : ২৯ এপ্রিল ২০২১, ০২:৫৮ পিএম

পাবনা শহরের পৌর এলাকা শালগাড়িয়া থেকে অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ অবৈধ যৌন উত্তেজক সিরাপসহ দুই যুবলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

গ্রেফতারকৃতরা হল, ছোট শালগাড়ীয়া এলাকার মৃত আকু শেখের ছেলে আজমল (৩৫) ও মৃত আফজাল হোসেনের ছেলে রাজ আহমেদ রনি (৪০)। তারা পাবনা জেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য। তাদের দুজনের বিরুদ্ধেই মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার (২৯ এপ্রিল) রাতে ছোট শালগাড়িয়া এলাকায় জনৈক তালেবের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বাড়ির ভাড়াটিয়া রাজ আহমেদ রনির কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অবৈধ যৌন উত্তেজক সিরাপ, মানবদেহের জন্য ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ ও ৫ বোতল স্পিরিটসহ তাকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

একই রাতে,  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলমের নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশ ছোট শালগাড়ীয়া এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময় আজমলকে আটকের পর তল্লাশী করে, তার কোমরে লুকিয়ে রাখা একটি লাইসেন্সবিহীন বিদেশি পিস্তল, ম্যাগজিন ও সাত রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। আজমলের বিরুদ্ধে পাবনা সদর থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, আজমল চিহ্নিত সন্ত্রাসী, তার বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্রসহ চারটি মামলা রয়েছে।

জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলী মর্তুজা বিশ্বাস সনি জানান, আটক হওয়া ব্যক্তিদের বিষয়ে জেনেছি। বিষয়টি কেন্দ্রীয় যুবলীগের নেতৃবৃন্দকে জানানো হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে কারো ব্যক্তিগত অপরাধের দায় যুবলীগ নেবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

পাবনা পুলিশ সুপার মুহিবুল ইসলাম খান বলেন, “পাবনায় অস্ত্র ও মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে পুলিশ নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে। কারো ব্যক্তি পরিচয় পুলিশের দেখার বিষয় নয়। অপরাধী হলে তাকে আইনের আওতায় আসতেই হবে।”

About

Popular Links