Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মসজিদে শিশুকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আলেম পলাতক

লম্পট আলেম মাহবুব তাকে পড়ানোর কথা বলে কোলের উপর বসিয়ে কৌশলে ধর্ষণ করে।

আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:২৬ পিএম

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার বরিশাট গ্রামে এক আলেমের বিরুদ্ধে সাড়ে চার বছরের এক শিশু ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। 

গতকাল (২৯ সেপ্টেম্বর) ধর্ষণের শিকার শিশুটির নানী বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় এ মামলাটি দায়ের করেছেন। জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য পুলিশ শিশুটিকে আজ রবিবার বিকেলে মাগুরার আদালতে পাঠিয়েছে।

শ্রীপুর থানায় দায়েরকৃত মামলার বিবরণে বাদী অভিযোগ করেন, তার সাড়ে ৪ বছর বয়সী নাতনি বরিশাট করিকর পাড়া জামে মসজিদে শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমে লেখাপড়া করে। 

অন্যদিনের মত ২৮ অক্টোবর সকাল ৯ টার দিকে শিশুটি ওই মসজিদে পড়তে যায়। ৯ টা থেকে ১১ পর্যন্ত লেখাপড়া শেষে কর্মরত শিক্ষক আলেম আফজাল হোসেন ওরফে মাহবুব (৩৫) সকল শিশুকে ছুটি দিয়ে তার নাতনিকে মসজিদে রেখে দেয়। এক পর্যায়ে লম্পট মাহবুব তাকে পড়ানোর কথা বলে কোলের উপর বসিয়ে কৌশলে ধর্ষণ করে। 

এ সময় শিশুটি চিৎকার দিলে লম্পট আলেম মাহবুব মসজিদ থেকে পালিয়ে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয়ভাবে ও রাতে চিকিৎসার জন্য মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। 

শিশুটির বাবা মাছুদ মোল্লার অভিযোগ, মাহবুবু সহ তার গোটা পরিবার জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত। তাদের ক’ভাইয়ের নামে থানায় নাশকতার মামলা রয়েছে। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে ইতপূর্বে এলাকায় একাধিক যৌন হয়রানীর অভিযোগ রয়েছে।

শ্রীপুর থানার ওসি মোঃ মাহবুবুর রহমান মিনে জানান, শিশুটির শরীরের বিশেষ স্থানে আচড়ের চিহৃ রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অভিযুক্ত মাহবুব ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়েছে। রবিবার বিকেলে জবানবন্ধি রেকর্ডের জন্য শিশুটিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. বিকাশ কুমার বিশ্বাস জানান, তারা বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছেন। দুই-এক দিনের মধ্যেই চূড়ান্ত রিপোর্ট পুলিশের কাছে হস্তান্তর করবেন।

About

Popular Links