Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মাদ্রাসা কমিটির সভাপতি না হতে পেরে পেটালেন অধ্যক্ষকে!

অভিযোগের বিষয়ে তারেক রহমান মুনির বলেন, এটি একটি সাজানো নাটক, যা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে করা হয়েছে

আপডেট : ২৬ মে ২০২১, ১০:০৭ পিএম

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় মাদ্রাসার অ্যাডহক কমিটির সভাপতি না হতে পেরে নতুন সভাপতি ও মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে তারেক রহমান মুনির নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

বুধবার (২৬ মে) দুপুরে উপজেলার ইসলামপুর ভুস্কুর আলিয়া আলিম মাদ্রাসার পাশের এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, পুলিশ এ ঘটনায় নতুন সভাপতি নাজমুস সাহাদত সোহেল ও মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোশাররফ হোসেনকে উদ্ধার করেছে। এছাড়া অভিযুক্ত মুনিরের ভাই আবদুল বাছেদকে আটক করা হয়। পরে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নন্দীগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

মামলার নথিসূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুরে অধ্যক্ষ মোশাররফ হোসেন ও সভাপতি নাজমুস সাহাদত সোহেল মাদ্রাসার পাশের একটি দোকানে গেলে তারেক রহমান মুনির ও তার লোকজন তাদের দু’জনকে ঘেরাও করে মারধর করেন এবং অবরুদ্ধ করে রাখেন। 

অভিযোগের বিষয়ে তারেক রহমান মুনির বলেন, “তাদের কাছে শুধুমাত্র কমিটি গঠনের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হয়েছিল। তাদের মারপিট বা অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ সঠিক নয়। এটি একটি সাজানো নাটক, যা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে করা হয়েছে।”

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নন্দীগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, সম্প্রতি নন্দীগ্রাম উপজেলার ইসলামপুর ভুস্কুর আলিয়া আলিম মাদ্রাসায় অ্যাডহক কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। ১৪ এপ্রিল মাদ্রাসা বোর্ড কমিটির সভাপতি হিসেবে নাজমুস সাহাদত সোহেলকে অনুমোদন করে।

কামরুল ইসলাম আরও জানান,  এ ঘটনায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষের একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

About

Popular Links