Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

টাঙ্গাইলে অবস্থার অবনতি, নতুন করে ১৬১ জন আক্রান্ত

গত মঙ্গলবার (২২ জুন) সকাল থেকে টাঙ্গাইল ও এলেঙ্গা পৌর এলাকায় ৭ দিনের কঠোর লকডাউন চলছে

আপডেট : ২৮ জুন ২০২১, ০১:৫৭ পিএম

টাঙ্গাইলে করোনাভাইরাসের সার্বিক পরিস্থিতির ক্রমেই অবনতি হচ্ছে। ক্রমাগত বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩৭১টি নমুনা সংগ্রহ করে ১৬১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪৩ দশমিক ৩৯ শতাংশ। 

এ নিয়ে সোমবার (২৮ জুন) দুপুর পর্যন্ত জেলায় মোট করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ১৯৪ জনে।

এদিকে, জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এখন পর্যন্ত জেলায় মোট ১০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ৪ হাজার ৮৬৯ জন। হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৫৩৭ জন। এখন পর্যন্ত মোট ২৮ হাজার ১০৫ জনকে কোয়ারেন্টাইনে আনা হয়েছিলো। এর মধ্যে ২৫ হাজার ২৯৩ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। জেলায় এখন পর্যন্ত ৪২ হাজার ৮৮৮টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা হয়।

সূত্র থেকে আরো জানা যায়, গত বছরের ৮ এপ্রিল জেলায় প্রথম করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয়। সদর উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সব চেয়ে বেশি। আর সব চেয়ে কম করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয় বাসাইল উপজেলায়। 

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. শাহাবুদ্দিন খান বলেন, গত এক মাস ধরে জেলায় করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এতে বুঝা যায় জেলায় সংক্রমণের হার অনেক বেশি। যার ফলে নমুনার সংখ্যাও বৃদ্ধি করা হয়েছে। এর ফলে আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে। 

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় গত মঙ্গলবার (২২ জুন) সকাল থেকে টাঙ্গাইল ও এলেঙ্গা পৌর এলাকায় ৭ দিনের কঠোর লকডাউন চলছে।

About

Popular Links