Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সিলেটে যে গ্রামের জনসংখ্যা মাত্র ৫!

এই গ্রামে স্বাধীনতার পূর্ব থেকেই বসবাস করে আসছে একটি মাত্র পরিবার।

আপডেট : ০৯ অক্টোবর ২০১৮, ০৬:০৩ পিএম

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের ‘শ্রীমুখ’ গ্রামের মোট জনসংখ্যা মাত্র পাঁচজন।এর মধ্যে রয়েছেন একজন পুরুষ, তিনজন নারী ও একটি শিশু। 

সরকারি গেজেটভুক্ত এই গ্রামে স্বাধীনতার পূর্ব থেকেই বসবাস করে আসছে একটি মাত্র পরিবার। খাজাঞ্চী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত তেলিকোনা ও পশ্চিম নোয়াগাঁও গ্রামের মধ্যবর্তী গ্রাম হচ্ছে ‘শ্রীমুখ’।

এক সময়ে এই গ্রামে একটি হিন্দু পরিবার বসবাস করতো। ১৯৬৪ সালে রায়টের সময় ওই হিন্দু পরিবার তাদের বাড়িটি বর্তমান বাসিন্দা আপ্তাব আলীর পূর্ব পুরুষের কাছে বিক্রি করে অন্যত্র চলে যান। এরপর থেকে এই বাড়িতে আপ্তাব আলীর পরিবার বসবাস করে আসছেন। শ্রীমুখ গ্রামে মাত্র পাঁচজন সদস্য হওয়ায় তারা পার্শ্ববর্তী পশ্চিম নোয়াগাঁও গ্রামের পঞ্চায়েতের সাথে রয়েছেন। গ্রামটির যাতায়াত ব্যবস্থা খুবই খারাপ। যাতায়াতের জন্য কোনও রাস্তা নেই। ছোট একটি আইল দিয়েই যাতায়াত করেন লোকজন। বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে এই গ্রামের লোকজন নৌকা ছাড়া বাড়ি থেকে বের হতে পারেন না। শুকনো মৌসুমেও কাদা পেরিয়ে তাদের চলাচল করতে হয়। ফলে গ্রামের বাসিন্দাদেরকে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ছোট গ্রাম হওয়ায় তারা উন্নয়ন বঞ্চিত ও অবহেলিত রয়েছেন বলে মনে করছেন এ গ্রামের বাসিন্দারা।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য আমির উদ্দিন বলেন, “বাংলাদেশে একটি বাড়ি নিয়ে গঠিত এরকম একটি ছোট গ্রাম খুবই কম রয়েছে। এই বাড়ির আশপাশে নিজস্ব কোনো জায়গা না থাকায় তাদের কোনো রাস্তা নেই। তাই বাধ্য হয়েই তারা একটি ছোট আইল দিয়ে যাতায়াত করেন।”

গ্রামের বাসিন্দারা যদি রাস্তার জন্য জায়গার ব্যবস্থা করে দেন তাহলে ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে রাস্তা নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।



সূত্র: ইউএনবি

About

Popular Links