Friday, June 14, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

৭০০ টাকায় র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করবে দেশের ৭৭ প্রতিষ্ঠান

বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ করলে অতিরিক্ত ৫০০ টাকা নেওয়া যাবে। একই পরিবারের একাধিক সদস্যের নমুনা নিলেও ৫০০ টাকার বেশি নেওয়া যাবে না

আপডেট : ১৮ জুলাই ২০২১, ১০:১৬ পিএম

মরণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্তে সারাদেশের ৭৭টি বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের অনুমতি দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এই টেস্টের ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৭০০ টাকা।

রবিবার (১৮ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিকসমূহ) ডা. ফরিদ হোসেন মিঞা কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্ধারিত শর্তাবলি প্রতিপালন সাপেক্ষে করোনাভাইরাস রোগ নির্ণয়ে "অ্যান্টিজেন টেস্ট" করার জন্য অনুমোদন প্রদান করা হলো।

এক্ষেত্রে এসব বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো দুটি কোম্পানির র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন কিট ব্যবহার করতে পারবে। তার মধ্যে একটি হলো দক্ষিণ কোরিয়ার এসডি বায়োসেনসর আর অন্যটি হলো যুক্তরাষ্ট্রের প্যানবায়ো।

প্রজ্ঞাপন থেকে আরো জানা যায়, যাদের মধ্যে করোনাভাইরাসের উপসর্গ এবং বিগত ১৪ দিনের মধ্যে যারা কোভিড পজিটিভ রোগীর সংস্পর্শে এসেছেন তাদের ক্ষেত্রে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা প্রযোজ্য হবে।

অ্যান্টিজেন টেস্টে নাক কিংবা মুখবিহবরের শ্লেষ্মা ব্যবহার করা হয়। আরএনএ বিশ্লেষণের পরিবর্তে এখানে ভাইরাসের প্রোটিন শনাক্ত করা হয়। আবার রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমেও অ্যান্টিজেনের উপস্থিতি শনাক্ত করা সম্ভব।

র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করার ক্ষেত্রে শর্ত দেওয়া হয়েছে যে, কোভিড-১৯-এর উপসর্গ/লক্ষণযুক্ত (সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্ট, মাথা ব্যথা, নাকে ঘ্রাণ না পাওয়া, মুখে স্বাদ না পাওয়া, ডায়রিয়া ইত্যাদি) ব্যক্তি এবং বিগত ১৪ দিনের মধ্যে কোভিড-পজিটিভ রোগীর সরাসরি সংস্পর্শে এসেছেন, তাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। অ্যান্টিজেন টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ হলে DHIS2 সার্ভারে এন্ট্রি দিতে হবে। লক্ষণযুক্ত ব্যক্তির অ্যান্টিজেন টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ হলে রিপোর্ট না নিয়ে অনুমোদিত আরটি পিসিআর ল্যাব থেকে টেস্ট করিয়ে নিশ্চিত হতে হবে এবং ওই রিপোর্ট DHIS-2 সার্ভারে এন্ট্রি দিতে হবে।

গত বছর দেশে নতুন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দেওয়ার পর শুধু আরটি-পিসিআর পরীক্ষাই চলত। গত বছরের ৫ ডিসেম্বর অ্যান্টিজেন পরীক্ষা চালু করে সরকার। সরকার এই পরীক্ষাটি বিনামূল্যে করে দিচ্ছে।

গত ১১ মার্চ স্থানীয় সরকার ও বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা খাতে অ্যান্টিজেন ও অ্যান্টিবডি স্টেটের নীতিমালা অনুমোদন করে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ। ১ জুন বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা খাতে কোভিড নির্ণয়ে অ্যান্টিজেন টেস্ট কিটের নামসহ মূল্য নির্ধারণের জন্য স্বাস্থ্য সেবা বিভাগে প্রস্তাব পাঠায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের ফি ৭০০ টাকা নির্ধারণ করা হলেও বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ করলে অতিরিক্ত ৫০০ টাকা নেওয়া যাবে। একই পরিবারের একাধিক সদস্যের নমুনা নিলেও ৫০০ টাকার বেশি নেওয়া যাবে না।

About

Popular Links