Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

দুই শিশু সন্তানকে রাস্তায় ফেলে গেলেন মা!

আড়িয়া বাজার এলাকায় শিশুদের কান্নাকাটি করতে দেখে স্থানীয়রা তাদের দাদা অমূল্য প্রামানিকের হাতে তুলে দিয়েছেন

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০৭:৫৯ পিএম

বগুড়ার শাজাহানপুরে দাম্পত্য কলহের জেরে দুই শিশুকে রাস্তার পাশে ফেলে মা রূপালী রানী প্রামানিক পালিয়ে গেছেন। শনিবার (৩১ জুলাই)  দুপুরে উপজেলার আড়িয়া বাজার এলাকায় শিশুদের কান্নাকাটি করতে দেখে স্থানীয়রা তাদের দাদা অমূল্য প্রামানিকের হাতে তুলে দিয়েছেন। আড়িয়া ইউনিয়নের সদস্য (মেম্বর) মুরাদ কোরাইশী এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ইউপি সদস্য ও আড়িয়া বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, শনিবার বেলা ১১টা দিকে পাঁচ বছর ও চার মাস বয়সী দুইশিশু সন্তানকে কোলে নিয়ে এক নারী সেখানে ঘোরাফেরা করছিলেন। কিছুক্ষণ পর শিশু দুটিকে রাস্তার পাশে কান্নাকাটি করতে দেখা যায়। কান্না দেখে স্থানীয়রা শিশু দুটিকে শনাক্ত করেন। শিশু দুটি শাজাহানপুর উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের ফুলকোট দক্ষিণপাড়া গ্রামের গার্মেন্টসকর্মী রঞ্জিত প্রামানিকের সন্তান। খবর পেয়ে দাদা অমূল্য প্রামানিক আড়িয়া বাজারে এসে নাতিদের উদ্ধার করেন।

অমূল্য প্রামানিক জানান, তার ছেলে রঞ্জিত প্রায় ১০ বছর আগে পার্শ্ববর্তী নওগাঁর আত্রাই উপজেলার মনোয়ারী গ্রামে রূপালী রানী প্রামানিককে বিয়ে করেন। রঞ্জিত ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করেন। সেখানে স্ত্রী ও দুই ছেলে জয় প্রামানিক ও বাবু প্রামানিককে নিয়ে বসবাস করেন। দাম্পত্য কলহে পুত্রবধূ ঈদের আগে দুই নাতিকে নিয়ে বাপের বাড়ি নওগাঁয় চলে আসে। ঈদের পরদিন রঞ্জিত ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরে স্ত্রী ও সন্তানদের দেখতে না পেয়ে শ্বশুরবাড়িতে যান। কিন্তু স্ত্রী না এসে রঞ্জিতের সাথে দুর্ব্যবহার করে তাড়িয়ে দেন। এ নিয়ে সেখানে শালিস-দরবার হলেও সমাধান হয়নি।

অমূল্য প্রামানিক আরও জানান, গার্মেন্টস খোলায় রঞ্জিত শনিবার সকালে ঢাকার দিকে রওনা দেন। স্থানীয় এক ইউপি সদস্য খবর দেন, তার দুই নাতিকে রাস্তার পাশে ফেলে বউমা পালিয়ে গেছেন। পরে তিনি নাতিদের বাড়িতে নিয়ে এসেছেন।

রূপালীর ফোন বন্ধ থাকায় সে কোথায় গেছে সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

About

Popular Links