Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মোবাইল ‘চু‌রির’ অভিযোগে কেটে দেওয়া হল শিশুটির চুল

শিশুটির মা বলেন, ‘ছেলে যদি চুরি করে, তবে আমার কাছে বিচার দিবে, আমি তাকে শাস্তি দিতাম। কিন্তু বাজারের লোকজন অমানবিকভাবে মারধর করেছে, চুলও কেটে দিয়েছে’

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২১, ১১:৪২ এএম

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় একটি মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে এক শিশুকে প্রকাশ্যে বাজারে মারধর করে তার মাথার চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠে‌ছে। 

শ‌নিবার (১৪ আগস্ট) বিকা‌লে উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের গৈলা বাজা‌রে এই ঘটনা ঘ‌টে।

স্থানীয়রা জানায়, ঘটনার দিন গৈলা বাজারের অলি টেলিকম থেকে একটি মোবাইল ফোন চুরির ঘটনায় স্থানীয় তাওহীদ খানের নেতৃত্বে স্থানীয় এনামুলসহ ৪-৫জন মিলে বিকেলে প্রকাশ্যে মারধর করে শিশুটিকে। প‌রে তার মাথার চুল কেটে দেওয়া হয়।

শিশুটির মায়ের অভিযোগ, দুপুরে তার ছেলে বাড়ি আসে। একটু পরে গৈলা অলি টেলিকমের মালিক অলি বেপারী তাদের বাড়ি এসে তাকে বাজারে ডেকে নিয়ে যায়। তার পরে বিকেলে তার ছেলে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি এসে জানায় যে একটি মোবাইল ফোন চুরির অপবাদে তাকে মারধর করে মাথার চুল কেটে দিয়েছে।

তিনি ব‌লেন, “আমার ছেলে যদি চুরি করে থাকে তাহলে তারা আমার কাছে বিচার দিলে আমি আমার ছেলের বিচার করতাম। আমার শিশু পুত্রকে মারধর করে বাজারের লোকজন অমানবিকভাবে মাথার চুল কেটে দিয়েছে।”

অলি টেলিকমের মালিক অলি ব্যাপারী বলেন, “আমি দোকানে না থাকা অবস্থায় অন্য একজনের উপস্থিতিতে আমার দোকান থেকে বিকাশ ও নগদ এজেন্টের দুটি সীম ভরা একটি মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়ে যায় ছেলেটি। দোকানের সিসি টিভি দেখে ফোন নেওয়ার ঘটনায় তার বাড়িতে গিয়ে তাকে জিজ্ঞেস করলে সে ফোন চুরির কথা স্বীকার করে। এক পর্যায়ে চুরি যাওয়া ফোনটি ফেরত দেয় সে। সিম ফেলে দেওয়ায় কোথায় ফেলেছে তা দেখানোর জন্য তাকে বাড়ি থেকে ডেকে আনি। কাঁচা বাজারের ময়লা ফেলার স্থান সিম ফেলেছে বলে জানায় সে। পরে সিম খুঁজে তাকে নিয়ে মসজিদে নামাজ পরে মিলাদের তোবারক দিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেই। এর পরে শুনেছি যে বাজারে বসে তার চুল কেটে দিয়েছে স্থানীয়রা।”

আগৈলঝাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম ছ‌রোয়ার ব‌লেন, “সৌরভ মোল্লা, তাওহীদ ও অলিসহ বেশ ক‌য়েকজন এই ঘটনা ঘ‌টি‌য়ে‌ছে ব‌লে জান‌তে পে‌রে‌ছি‌। যথাযথ আইনগত ব‌্যবস্থা নেওয়া হ‌বে এই ঘটনায়।”

About

Popular Links