Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘আফগানিস্তানে জনগণের সরকার হলে গ্রহণ করবে বাংলাদেশ’

আফগানিস্তানে যদি তালেবান সরকার হয় এবং সেটা যদি জনগণের সরকার হয় তাহলে বাংলাদেশ মেনে নেবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন

আপডেট : ১৬ আগস্ট ২০২১, ০৮:০০ পিএম

আফগানরা যে সরকার গড়বে, তা বাংলাদেশও মেনে নেবে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আফগানিস্তানে যদি তালেবান সরকার হয় কিংবা হয়েছে এবং সেটা যদি জনগণের সরকার হয় তাহলে আমাদের দরজা অবশ্যই খোলা।

সোমবার (১৬ আগস্ট)  বিকেল ৫টায় রাজধানীর মহাখালীর বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান অ্যান্ড সার্জন (বিসিপিএস) মিলনায়তনে সিনোফার্ম টিকার যৌথ উৎপাদনের ত্রিপক্ষীয় চুক্তি শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তিনি।

তালেবান ক্ষমতায় আসলে ঢাকা-কাবুল সম্পর্কে প্রভাব পড়বে কি না জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আফগানিস্তান সার্কের সদস্য, আমাদের বন্ধু রাষ্ট্র। আমরা চাই তাদেরও উন্নতি হোক। আমরা সবাইকে নিয়ে সবার উন্নয়ন করতে চাই। নতুন যে সরকারই আসুক, সেটা যদি জনগণের সরকার হয় তাহলে আমরা সেটা গ্রহণ করবো।

তিনি আরও বলেন, আমরা জনতার সরকারে বিশ্বাস করি, আমরা গণতান্ত্রিক সরকারে বিশ্বাস করি। আমরা বিশ্বাস করি সেই সরকারে, যে সরকারের দ্বারা দেশের উন্নয়ন সম্ভব। আর তাদের সঙ্গেই আমাদের বন্ধুত্ব। আর সেই সরকার আমাদের কাছে সাহায্য চাইলে আমরা করবো।

আফগানিস্তানে বাংলাদেশের দূতাবাস নেই। উজবেকিস্তানে বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূত জাহাঙ্গীর আলম একসঙ্গে আফগানিস্তান, কিরগিজস্তান ও তাজিকিস্তানে রাষ্ট্রদূতের দায়িত্বে আছেন।

About

Popular Links