Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সুদের টাকা না পেয়ে কেটে নেওয়া হলো সিএনজিচালকের কান

স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ২০ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছিলেন তিনি

আপডেট : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫৪ পিএম

বগুড়ার শাজাহানপুরে সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় এনামুল হক (৪৬) নামে এক সিএনজি চালককে মারপিটের পর তার কান কেটে দিয়েছে সুদ ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার মাদলা ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর উত্তরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় আহত এনামুল হকের স্ত্রী নাজমা বেগম বাদী হয়ে পাঁচ সুদ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে শাজাহানপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। 

অভিযুক্তরা হলেন- শাজাহানপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর তালতলা এলাকার মজনু মিয়া (৪৫), শ্মশানকান্দির জহুরুল ইসলাম (৩৬), রামচন্দ্রপুর এলাকার শফিকুল ইসলাম (৩৫) ও তার ভাই মো. শাফি (৩০) এবং আজিজার রহমান (৩০)। 

এজাহার সূত্রে জানা যায়, নাজমা বেগমের শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিন মাস আগে প্রতিবেশী দাদন ব্যবসায়ী মজনু মিয়ার কাছে স্বর্ণের কানের দুল বন্ধক রেখে ২০ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছিলেন এনামুল হক। এ জন্য তাকে প্রতি সপ্তাহে দুই হাজার টাকা সুদ দিতে হতো। কিন্তু অসুস্থতার কারণে দুই-তিন সপ্তাহ সুদের টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে ক্ষুব্ধ মজনু মিয়া তার লোকজনকে নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে এনামুলের বাড়িতে এসে তাকে লাঠি দিয়ে মারধর করেন। এ সময় স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে নাজমা বেগমকেও মারধর করা হয়। এক পর্যায়ে এনামুলের কানে ইট দিয়ে আঘাত করা হলে তার বাম কানের অংশ কেটে পড়ে যায়। 

নাজমা বেগম জানান, রক্তাক্ত এনামুলকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

এ বিষয়ে শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মামুন ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্তের পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

তবে বুধবার বিকেল পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

About

Popular Links