Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নিখোঁজ নারী ইউপি সদস্যের মরদেহ মিলল ধানক্ষেতে

তিনি চারদিন ধরে নিখোঁজ থাকলেও এই ব্যাপারে তার স্বজনরা থানায় কোনো ডিজি বা অভিযোগ করেননি বলে জানিয়েছে ধুনট থানা পুলিশ

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১১ পিএম

বগুড়ার ধুনটে নিখোঁজের চারদিন পর রেশমা খাতুন (৩৮) নামে এক ইউপি সদস্যের মরদেহ ধানক্ষেত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি নিখোঁজ থাকলেও এই ব্যাপারে স্বজনরা থানায় কোনো ডিজি বা অভিযোগ করেননি বলে জানিয়েছে ধুনট থানা পুলিশ।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় তার বাড়ি থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে কুড়িগাতি গ্রামের একটি ধানক্ষেতে তার মরদেহ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে নিহতের ভাই ধুনট থানায় অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে মরদেহ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মৃত্যু রহস্য উদঘাটন ও জড়িতদের শনাক্ত করতে তদন্ত চলছে। মরদেহে পঁচন ধরায় তাকে কীভাবে হত্যা করা হয়েছে তা বোঝা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

পুলিশ ও স্বজনরা জানান, নিহত রেশমা খাতুন বগুড়ার ধুনট উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের ফরিদুল ইসলামের স্ত্রী। তিনি ওই ইউনিয়নের ৩ নম্বর সংরক্ষিত আসনের (৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড) সদস্য।

নিহতের স্বামী ফরিদুল ইসলাম জানান, রেশমা খাতুন গত ১৮ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেলে চিকিৎসার জন্য শেরপুর যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। সন্ধ্যার পর থেকে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। আত্মীয়-স্বজনদের বাড়ি ও সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজ করে তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

About

Popular Links