Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘বাবা-মা ক্ষমা করো’ নোট লিখে পাবনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:২১ পিএম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) তাহমিদুর রহমান জামিল (২২) নামের এক ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার সময় পাবনা শহরের একটি মেস থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জামিল চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শাহীবাগ এলাকার বজলার রহমানের ছেলে। 

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম শুক্রবার সকালে ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শহরের শালগাড়িয়া মেরিল বাইপাস এলাকার সাফল্য ছাত্রাবাসে থাকতেন তাহমিদুর রহমান জামিল।পারিবারিক কোনো একটি বিষয় নিয়ে কিছুদিন ধরে মানসিক অস্থিরতায় ভুগছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর তার সাড়া-শব্দ পাননি সহপাঠীরা। পরে কক্ষের দরজা খুলে তাকে ফ্যানের হুকের সঙ্গে ব্যাগের বেল্ট গলায় পেঁচানো অবস্থায় ঝুলতে দেখে থানায় খবর দেন তারা। পরে পুলিশ গিয়ে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

ওসি আমিনুল ইসলাম আরও জানান, তার কক্ষ থেকে একটি সুইসাইড নোটও উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে “বাবা-মা ক্ষমা করো, গুড বাই” এরকম কিছু কথা লিখে গেছেন ওই শিক্ষার্থী। এতে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে। ময়নাতদন্ত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

About

Popular Links