Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঢাবি গ্রন্থাগারে পড়াশোনা করতে গিয়ে হুড়োহুড়ি!

বিজ্ঞান গ্রন্থাগারে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে প্রবেশের কারণে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কর্তৃপক্ষের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:১৬ পিএম

দীর্ঘ দেড় বছর পর খুলে দেওয়া হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগার। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় গ্রন্থাগারের মূল ফটক খুলে দেওয়া হয়। তবে প্রথমদিনেই বিজ্ঞান গ্রন্থাগারে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে প্রবেশের কারণে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কর্তৃপক্ষের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, অন্তত এক ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা গ্রহণের প্রমাণপত্র ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র দেখিয়ে গ্রন্থাগারে প্রবেশ করার কথা থাকলেও বিজ্ঞান গ্রন্থাগারে কিছু শিক্ষার্থী স্বাস্থ্যবিধি না মেনে আগের মতোই হুড়োহুড়ি ঢুকে পড়ে।

এ ঘটনার কিছুক্ষণ পর গ্রন্থাগারে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কিনা, তা পরিদর্শন করতে আসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী, প্রধান গ্রন্থাগারিক নাসিরউদ্দিন মুন্সি ও শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নিজামূল হক ভূঁইয়াসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা। তারা লাইব্রেরিতে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে কথা বলতে চাইলে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। 

একপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর লিটন কুমার সাহা এক শিক্ষার্থীকে চড় মারতে তেড়ে গেলে প্রতিবাদে তাকে ঘিরে ধরেন শিক্ষার্থীরা। এসময় গ্রন্থাগারের ভেতরে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। 

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, গ্রন্থাগারে শুধু নিয়মিত শিক্ষার্থীদের প্রবেশের কথা থাকলেও চাকরির প্রস্তুতি নেওয়া সাবেক শিক্ষার্থীরা ঢুকে পড়ে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে গেলে এ অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা চিন্তা করে স্বাস্থ্যবিধি মানতে বলা হয়েছে। কিন্তু তারা যদি অসহযোগিতা করে, তাহলে আমাদের কী করার আছে। গ্রন্থাগারে কেবল নিয়মিত শিক্ষার্থীদের প্রবেশের কথা ছিল। এখন সাবেক শিক্ষার্থীরা ঢুকে পড়েছে। শৃঙ্খলা বজায় রাখতে আমরা সবার সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের কাছে অভিভাবক তুল্য। তাদের শাসন করার অধিকার শিক্ষকদের আছে।“


আরও পড়ুন: দেড় বছর পর শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখর ঢাবি গ্রন্থাগার


প্রসঙ্গত, গত ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় সিদ্ধান্ত হয়, অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়ার প্রমাণপত্র ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈধ পরিচয়পত্র থাকা সাপেক্ষে আজ থেকে স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগার ও সেমিনার গ্রন্থাগারগুলো সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে শিক্ষার্থীদের দাবি, সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সবার জন্য গ্রন্থাগার খোলা রাখতে হবে।

About

Popular Links