Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

৪২ ভোট পেয়ে জামানত হারালেন নৌকা প্রার্থী

৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩টি কেন্দ্রে তিনি পেয়েছেন মাত্র ১টি করে ভোট

আপডেট : ০২ মার্চ ২০২২, ০৪:৩০ পিএম

পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার ফলশী ইউনিয়নের ৯ টি কেন্দ্রে মাত্র ৪২ ভোট পেয়ে জামানত হারিয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী নিমাই চাঁদ মণ্ডল। বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হরিণাকুন্ডু উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. নুর উল্লাহ।

ওই ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অ্যাডভোকেট বজলুর রহমান ৪ হাজার ৬২৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান পেয়েছেন ৪ হাজার ১৭৯ ভোট।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার জানান, ওই ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১০ হাজার ৪২৬ জন। ৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। মোট ভোট পড়েছে ৮ হাজার ৮৪৪ টি। ৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩টি কেন্দ্রে তিনি পেয়েছেন মাত্র ১টি করে ভোট।

এ ব্যাপারে প্রার্থী নিমাই চাঁদ মণ্ডল বলেন, “নৌকা প্রতীক পাওয়ার পর আমি আশা করেছিলাম ভোটে জিতব। কিন্তু এমন কেন হলো সেটা বলতে পারছি না। মূলত এখানে আওয়ামী লীগের দুইটা পক্ষ হয়ে যাওয়ার কারণে এটা হতে পারে।”

বিজয়ী প্রার্থী অ্যাডভোকেট বজলুর রহমান বলেন, “যিনি নৌকা প্রতীক পেয়েছিলেন তিনি জনবিচ্ছিন্ন লোক। মানুষ তাকে পছন্দ করেনি। দল তাকে মনোনয়ন দিয়েছিল কিন্তু ভোটাররা তাকে পছন্দ করে না বলে আমাকে নির্বাচিত করেছেন। আমি মনে করি ভোটাররা যা সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাই সঠিক। তারা প্রতীক না প্রার্থীকে অগ্রাধিকার দিয়েছেন।”

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু বলেন, “ফলশী ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক পাওয়ার পর নিমাই চাঁদ মণ্ডল কাজ করছিল। কিন্তু ভোট গ্রহণের আগে সে মাঠ ছেড়ে দেয়। যে কারণে তার এই ফলাফল হয়েছে। আওয়ামী লীগেরই একটি গ্রুপ তার বিরোধিতা করেছে বলেই সে হেরেছে।”

এ ব্যাপারে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল ছালেক বলেন, “একজন প্রার্থী তার নির্বাচনী কেন্দ্রে প্রদত্ত ভোটের ৮% পেলেই তার জমানত ফেরত পান। এর থেকে কম হলে জমানত বাজেয়াপ্ত করা হয়।”

About

Popular Links