Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ছেলে হত্যার বিচার দাবিতে লাশ নিয়ে থানায় বাবা

এ ঘটনায় মৃতের স্ত্রী ও এক যুবকের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা হয়েছে

আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:৪৬ পিএম

ছেলেকে হত্যার তদন্ত ও বিচার দাবিতে মরদেহ নিয়ে থানায় হাজির হয়েছেন ফারুক নামে এক ব্যক্তি। সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকালে বরগুনা সদর থানায় এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশের নির্দেশে দুপুরে মরদেহ দাফনের জন্য বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়।

মৃত রাসেল বরগুনা সদর উপজেলার সদর ইউনিয়নের কলাতলা গ্রামের মোহাম্মদ ফারুকের ছেলে। তিনি রাজধানীতে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন এবং কামরাঙ্গীরচর এলাকায় মামার ভাড়া বাসায় স্ত্রী রুমি বেগমকে নিয়ে বসবাস করতেন।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার কামরাঙ্গীরচরের ওই বাসায় রাসেলের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় তার মামাতো ভাই রিয়াজ কামরাঙ্গীরচর থানায় রাসেলের স্ত্রী ও কাইয়ুম নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা করেন।

মামলার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে। রাসেলের মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে রিয়াজের কাছে হস্তান্তর করেছে। সোমবার ভোরে অ্যাম্বুলেন্সে করে রাসেলের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে এলে তার বাবা মরদেহ নিয়ে থানায় হাজির হয়ে হত্যার বিচারের দাবি জানান।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, “আমার ছেলেকে সম্পত্তির জন্য খুন করেছে রিয়াজ। এখন পরকীয়ার অভিযোগ দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে সে পালিয়ে গেছে। আমি এ ঘটনার সঠিক তদন্ত ও বিচার চাই।”

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম তারিকুল ইসলাম বলেন, “যেহেতু মরদেহের ময়নাতদন্ত আগেই হয়েছে তাই আর নতুন করে করা হয়নি। এছাড়া মামলাটি ঢাকার কামরাঙ্গীরচর থানার আওতাধীন। তাই মরদেহ দাফনের জন্য পরিবারকে নিয়ে যেতে বলা হয়েছে।”

About

Popular Links