Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

খুলনা নদীবন্দরের বন্দর ও পরিবহন বিভাগের উপপরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে

আপডেট : ১৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৬:০৭ পিএম

সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) খুলনা নদীবন্দরের বন্দর ও পরিবহন বিভাগের উপপরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের নতুন ধরন অমিক্রনের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় খুলনা থেকে সুন্দরবন ভ্রমণ, শিক্ষাসফর, বনভোজন, নৌভ্রমণ ও নৌবিহারে পর্যটকবাহী নৌযান ও লঞ্চগুলো চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হলো। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

খুলনা নদী বন্দর বিভাগের (বন্দর ও পরিবহন) উপ পরিচালক মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, “কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা পেয়ে সুন্দরবনে ভ্রমণে যাওয়া লঞ্চ চলাচলে ১৩ জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সাময়িকভাবে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। যাত্রীবাহী লঞ্চ এ নির্দেশনার আওতা মুক্ত থাকছে।”

তবে ট্যুর অপারেটর সমিতির দাবি, তাদের সঙ্গে আলোচনার পর ওই নিষেধাজ্ঞা মৌখিকভাবে প্রত্যাহার করা হয়েছে। অন্যদিকে, এখনও সুন্দরবন ভ্রমণের বিষয়ে কোনো নির্দেশনা দেয়নি বলে জানিয়েছে বন বিভাগ।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. বেলায়েত হোসেন বলেন, “বন বিভাগ থেকে এখনও সুন্দরবন ভ্রমণের বিষয়ে কোন ধরনের বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়নি। সব এখনও স্বাভাবিক নিয়মে চলছে।”

ট্যুর অপারেটর এ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবনের সাধারণ সম্পাদক এম নাজমুল আযম ডেভিড বলেন, “আমরা বিআইডব্লিউটিএর একটি চিঠি ১২ জানুয়ারি বিকেলে পেয়েছি। তাতে সুন্দরবন ভ্রমণের ওপর সাময়িক বিরত থাকতে বলা হয়েছে। কিন্তু ১৩ জানুয়ারি বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে আপাতত ওই আদেশ মৌখিকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে তিনি পরে লিখিত চিঠি দিবেন।”

উল্লেখ, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির শুরুতে ২০২০ সালের ২৬ মার্চ থেকে সুন্দরবন ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। কিন্তু পরিস্থিতি কিছুটা শিথিল হলে ২০২০ সালের ১ নভেম্বর থেকে স্বল্প পরিসরে সুন্দরবন ভ্রমণের সুযোগ দেওয়া হয়। এর সাড়ে ৭ মাস পর ফের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি অবনতি হলে ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশে ফের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। সাড়ে ৪ মাস সুন্দরবন বন্ধের পর ২০২১ সালের ১ সেপ্টেম্বর আবারও সুন্দরবন ভ্রমণ শুরু হয়।

About

Popular Links