Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়েও ভোট দিতে পারিনি’, তরুণ ভোটারের অভিযোগ

ওই কলেজছাত্রীর অভিযোগ, বুথের বাইরে আঙুলের ছাপ দিয়ে ভেতরে গিয়ে তিনি দেখতে পান তার ভোট দেওয়া হয়ে গেছে। বুথের ভেতরে থাকা এক যুবক তার ভোটটি দিয়ে দিয়েছেন

আপডেট : ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:২৯ পিএম

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আস‌নের উপ‌নির্বাচ‌নে একটি কেন্দ্রে ভোট দিতে এসেছিলেন এক কলেজছাত্রী। তিনি অভিযোগ করেছেন, ভোটকেন্দ্রে বুথের বাইরে আঙুলের ছাপ দিলেও ভোট দিতে পারেননি। ভেতরে ঢুকে তিনি দেখতে পান, তার ভোটটি অন্য একজন দিয়ে দিয়েছেন।
রবিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুর ২টার দি‌কে মির্জাপুরের পুষ্টকামরী এলাকার আলহাজ মো. শ‌ফি উদ্দিন মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় একটি কলেজে ডিগ্রি প্রথম বর্ষে অধ্যয়নরত ওই শিক্ষার্থীর নাম রানু খাতুন। তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালেও সংশ্লিষ্ট কেউ তাতে গুরুত্ব দেননি।
রানু বলেন, “ভোট দিতে নারীদের জন্য নির্ধারিত ৭ নম্বর কক্ষে গেলে দায়িত্বপ্রাপ্ত পো‌লিং অফিসার প্রথমে একটি মেশিনে আঙুলের ছাপ নেন। প‌রে আমি ভোট দি‌তে গোপন কক্ষে (বুথ) গেলে আমাকে বলা হয়, ‘আপনার ভোট দেওয়া শেষ। বিষয়‌টি দা‌য়িত্বরত‌দের জানালেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। শুধু আমি একাই না, যারা কেন্দ্রে ভোট দি‌তে এসেছেন তাদের অনেকের ভোটই একই ভাবে নেওয়া হ‌য়ে‌ছে’।”
রানু আ‌রও বলেন, “জীবনের প্রথম ভোট‌টি পছন্দের প্রার্থী‌কে দি‌তে পারলাম না। তারা আমার ভোট দি‌য়ে দিয়েছে। এই আক্ষেপ সারাজীবন থাকবে।”
এ বিষয়ে আলহাজ মো. শ‌ফি উদ্দিন মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আশরাফুল আলম বলেন, “ভোটাররা সুষ্ঠুভাবে তা‌দের ভোটা‌ধিকার প্রয়োগ করছেন। কোনো ভোটার এখন পর্যন্ত অভিযোগ করেননি।”

প্রসঙ্গত, টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয় গত ৩০ নভেম্বর। এর আগে গত ১৬ নভেম্বর স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ একাব্বর হোসেন মারা যান। এরপর ৩০ নভেম্বর এই আসনটি শূন্য ঘোষণা করে তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

About

Popular Links